মেইন ম্যেনু

পার্বতীপুরে কিডনী রোগী ৬ মাসের শিশুকণ্যার মা কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

পার্বতীপুর নতুনবাজার রিফাত রায়হান রুবেলের স্ত্রী, বিরল উপজেলার মাধব বাটি গ্রামের আব্দুল বাকীর কণ্যা লাভলী আরা কিডনী রোগী  ৬ মাসের শিশুকণ্যা  রিফাত তামান্নার মা’কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন।

পার্বতীপুরে গৃহবধু কিডনী রোগী ৬ মাসের শিশুকণ্যা রিফাত তামান্নার মা’কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন। হতভাগী মা লাভলী আরা’র একটি কিডনী সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে অন্য কিডনীটিও আক্রান্ত হয়েছে। কয়েক মাস ধরে এই হতভাগী মুমুর্ষ রুগীকে নিয়ে স্বামী রিফাত রায়হান রুবেল বিভিন্ন ক্লিনিক এবং হাসপাতালে ছুটো-ছুটি করতে করতে গত ২৩ সেপ্টেম্বর রংপুর কিডনী রোগ ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চিকিৎসাধীনে আছেন। চিকিৎসার জন্য ব্যায় হবে ১০ লক্ষ থেকে ১২ লক্ষ টাকা। ৬ মাসের শিশুকণ্যার হতভাগীনি মা এবং বাবার পরিবারের পক্ষে কোন ক্রমেই এতো টাকা চিকিৎসার জন্য জোগান দেওয়া সম্ভব নয়। তাহলে কি অর্থের কারণে চিকিৎসার অভাবে অকালে এই শিশুকণ্যা রিফাত তামান্না মা হারা হবে। আমরা কি এই শিশুকণ্যার হতভাগীনি মা এর জন্য কিছুই করতে পারবো না !` এই অসহায় স্বামী কোথায় পাবে এত টাকা ! যা ছিলে এতদিনের চিকিৎসার পিছনে সহায় সম্বল সব খুইয়েছে। এখন শেষ মুহুর্তে অসম্ভব হয়ে ওঠছে এই পরিবারের দৃষ্টি। কে না চায় এই সুন্দর পৃথিবীতে আর একটু বেঁচে থাকতে। এই ৬ মাসের শিশুকণ্যাটিও কি তাহলে মা ছাড়া বেঁচে থাকতে পাবে?  আমরা কি নিজ নিজ অবস্থান থেকে চিকিৎসার জন্য অর্থ সহযোগীতার মধ্য দিয়ে এই শিশুকণ্যার মায়ের স্নেহ অটুক রেখে পরিবারটির মুখে হাঁসি ধরে রাখতে পারবো না ! অবশ্যই আল্লাহর ইচ্ছায় আমাদের সকলের অর্থ দানের মধ্যদিয়ে একমাসের মধ্যে এই অর্থ সংগ্রহ করে লাভলীর চিকিৎসা করাতে পারবো, নইলে চিরতরে বিদায় নিতে হবে ৬ মাসের শিশুকণ্যার এই হতভাগীনি মাকে। অর্থের কারণে এই শিশুকণ্যাটিও হয়তো চিরতরে অন্ধকারে হারিয়ে যাবে। এই  শিশুকণ্যাটির মা আকুতি করে সবাইকে বলছে ‘‘অন্তত আমার শিশুকণ্যার মুখের দিকে চেয়ে আমাকে বাঁচার সহযোগীতা করুন’’ আসুন আমরা সবাই মিলে এই ১ মাসের মধ্যে অর্থ হাত বাড়িয়ে দিই। অর্থ সাহায্যের ঠিকানা – স্বামী রিফাত রায়হান রুবেল, নতুন বাজার পার্বতীপুর। রুগীর নিজের মোবাইলে অর্থ পাঠাতে অনুরোধ করা হলো। যার বিকাশ নম্বর ০১৭৫৩৫৭৯৯৮৯ এছাড়া একাউন্ড নম্বর ১৯৪৬৮ আল আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক, দিনাজপুর শাখা।






মন্তব্য চালু নেই