মেইন ম্যেনু

পাকিস্তান থেকে পারমাণবিক অস্ত্র কিনবে আইএস!

দ্রুত শক্তিশালী হয়ে ওঠা জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) আগামী এক বছরের মধ্যে পারমাণবিক অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির যন্ত্রপাতি কিনতে পারে। পাকিস্তানের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়ে এ কাজ করতে পারে দেশটিতে ঘাপটি মেরে থাকা আইএসের প্রতিনিধিরা।

আইএস পরিচালিত সাময়িকী ‘দাবাকে’ প্রকাশিত এক নিবন্ধে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইন ওই সাময়িকীর বরাত দিয়ে শনিবার এমন প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

খবরে বলা হয়েছে, নিবন্ধটি লিখেছেন, দুই বছর ধরে আইএসের হাতে জিম্মি ব্রিটিশ ফটোসাংবাদিক জন ক্যান্টলি। আইএসে তাকে তাদের বিভিন্ন বিষয় প্রচারণার কাজে ব্যবহার করে আসছে।

‘সত্যিকারের ঝড়’ নামের ওই নিবন্ধে দাবি করা হয়, আইএস যোদ্ধারা যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের সেনাদের কাছ থেকে ট্যাংক, রকেট লাঞ্চার, ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা, বিমান বিধ্বংসী ব্যবস্থা দখল করেছে। তবে সংগঠনটি এখনো পারমাণবিক অস্ত্রের মতো ভয়ংকর কোনো অস্ত্র দখল করতে পারেনি। তাই তারা পাকিস্তানের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগসাজশ আছে এমন অস্ত্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পারমাণবিক অস্ত্র কিনতে পারে।

ব্যাংকে আইএসের কয়েক শ কোটি ডলার রয়েছে। সিরিয়া ও ইরাকের বিশাল তেলক্ষেত্র দখলে নিয়ে তেল বিক্রি করছে। তাছাড়া বিভিন্ন দেশ তাদের অর্থ দিয়ে সহায়তা করে থাকে বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ ধরণের কাজ বাস্তবায়ন করা কষ্টকর বলেও স্বীকার করা হয়েছে ওই নিবন্ধে। তবে পশ্চিমা গোয়েন্দা সংস্থার ও তাদের সহযোগীদের জন্য এটি ভয়ের কারণ বলেও সতর্ক করা হয়েছে। পাশাপাশি পরমাণু অস্ত্র সক্ষমতা অর্জন এক বছর আগের তুলনায় বর্তমানে অনেক বেশি সম্ভব বলে দাবি করা হয় এতে।

পারমাণবিক অস্ত্র যদি না পাওয়া যায়, এর বিকল্প হিসেবে কয়েক হাজার টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বিস্ফোরক তৈরির কথা জানানো হয় নিবন্ধে। তবে ওই নিবন্ধ আইএস লিখিয়েছে কি না, তা প্রমাণ করা সম্ভব হয়নি।






মন্তব্য চালু নেই