মেইন ম্যেনু

নেলসন ম্যান্ডেলা স্বর্ণপদক পেলেন ভোলার ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার কুতুবা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান জোবায়েদ নেলসন ম্যান্ডেলা স্বর্ণপদক পেয়েছেন। সমাজ সেবায় বিশেষ আবদানের জন্য গত ২২ মে ঢাকায় এ পদক গ্রহণ করেন।

সোমবার সকালে লঞ্চযোগে ঢাকা থেকে নিজ এলাকায় আসলে গংগাপুর লঞ্চঘাটে হাজারো মানুষ ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন। ২ যুগের অধিক কালের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি জনপ্রিয় চেয়ারম্যানকে। এর আগে ও তিনি হাজী মোহাম্মদ মহসিন স্বর্ণপদক, বোরহানউদ্দিন খেলোয়ার কল্যাণ সংস্থা সংবর্ধনা স্মারক সহ কয়েকবার পুরস্কার লাভ করেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, কুতুবা ইউনিয়নের হায়দার আলী মিয়া বাড়ীর এক সম্ভাম্ভ পরিবারে জম্ম নাজমুল আহসান জোবায়েদ। পরিবাওে ৮ ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় নাজমুল। আ’লীগ পরিবারের সদস্য হিসাবে পরিবারটি বেশ পরিচিত। আশির দশকে কুতুবা ইউনিয়নের সদস্য পদে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে প্রথম জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হন। পর পর ২ বার সদস্য পদে নির্বাচিত হবার পর চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে বিএনপি জোট সরকারের সময়ে উপজেলার মধ্যে আ’লীগ সমর্থিত একমাত্র প্রার্থী হিসাবে তিনি নির্বাচিত হন। কুতুবা ইউনিয়নের একমাত্র তিনিই জনপ্রতিনিধি হিসাবে ২যুগের অধিক সময়কাল ধরে জনপ্রতিনিধিত্ব করছেন। ইউনিয়নের লোকজনের সুখ দুঃখে তিনি সব সময় ছায়ার মতো পাশে থেকেছে। ভয়াবহ দুর্যোগ সিডরের তিনি ক্ষতিগ্রস্থদেরকে তার বাড়ীর সামনের প্রাইমারী স্কুলে আশ্রয় দিয়ে খাওয়া দাওয়া সহ পূনবাসনে ব্যাপক ভূমিকা রাখেন । এমন বক্তব্যদেন ওই ইউনিয়নের সেলিম,রাজ্জাক।

অন্যদিকে স্কুল শিক্ষক জাকির জানায়, চেয়ারম্যানের খোঁজে বাড়ীতে এসে কেউ খালিমুখে যেতে পরতেন না। কুতুবা ইউপি সদস্য ফখরুল আলম,মামুন হোসেন,জাহাঙ্গীর মাতাব্বর,নয়ন,আবু জাফর,হুমায়ুন জানান,তিনি শুরু আমাদের চেয়ারম্যানই নয়,তিনি আমাদের অভিভাবক। পরিষদের যে কোন ব্যাপারে আমাদের সাথে আলাপ না করে সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন না। চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান জুবায়েদ জানান, এ পুরস্কার প্রাপ্তি তার দায়িত্ববোধ আর ও বাড়িয়ে দিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই