মেইন ম্যেনু

নিহতের ৭৭ শতাংশ সাধারণ মানুষ, গাজা হামলায় স্টিফেন হকিংয়ের প্রতিবাদ

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু যেকোনো প্রকারে হামাসকে থামানো প্রতিজ্ঞা করেছেন।

রোববার গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নেতানিয়াহু জানান, সাধারণ জনতার ওপর হামাসের বোমাবর্ষণ থামাতে তিনি বদ্ধপরিকর। তবে গাজার ওপর তার বিমান হামলা কবে থামবে বা তার স্থলবাহিনীর অভিযান কবে শেষ হবে, সে বিষয়ে তিনি কিছু বলেননি।

দ্বৈত নাগরিকত্বের ৮শ’ ফিরিস্তিনি গাজা ত্যাগ করছেন [ছবি: বিবিসি]

এদিকে রোববার সকালে গাজায় ইসরায়েলি স্থলবাহিনী প্রবেশ করেছে। এর ফলে এই উপত্যকায় চলমান সংঘর্ষ পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধের রূপ পেল, যা সর্বশেষ ঘটেছিল ২০০৯ সালে।

পকে সপ্তাহ ধরে চলা এ সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১৭২ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর মূখপাত্র ল্যাফটেনেন্ট কর্ণেল পিটার লার্নার রোববার জানান, গাজায় এখন পর্যন্ত ১হাজার ৩শ’ বিমানহামলা চালানো হয়েছে। অপরদিকে ফিলিস্তিনি হামাস গ্রুপ গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১শ ৩০টাসহ মোট ৮শ’ রকেট হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলে। হামাসের রকেট হামলায় কিছু ইসরায়েলি আহত হলেও কোনো ধরণের বড় দূর্ঘটনা বা নিহতের ঘটনা ঘটেনি।

রাফাহ’র একটি এলাকায় আঘাত হানা ইসরায়েলি মিসাইলকে ঘিরে ফিলিস্তিনিরা [ছবি: বিবিসি]

নেতানিয়াহু বলেন, আমরা এটা আর গ্রহণ করতে পারছি না। আমরা সেটাই করবো, যা অন্যান্য দেশও করতো।

তিনি ফিলিস্তিনি জনগণের হতাহতের ঘটনায় ক্ষমা চাইলেও এর জন্য দায়ী করেছেন হামাসকে, কারণ তার মতে হামাস সাধারণ জনগণকে নিজেদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।

সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডেনিস রসও রোববার নেতানিয়াহুর সাথে একমত হয়ে বলেন, নেতানিয়াহুর উদ্দেশ্য শান্তি প্রতিষ্ঠা, হামাসকে ধ্বংস করা নয়।

ফিলিস্তিনি এক কিশোর, যার বাবা ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয়েছে

এদিকে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ যার্ফি ইসরায়েলকে না থামানোয় রোববার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর সমালোচনা করেছেন। তিনি ইসরায়েলি এই আগ্রাসনকে ‘বর্বর হত্যাকাণ্ড’ বলে অভিহিত করেছেন।

এদিকে রোববার ইসরায়েলি বাহিনী গাজায় প্রবেশ করার পর প্রানভয়ে ৪ হাজার ফিলিস্তিনি দক্ষিণের দিকে পালিয়ে গেছে। তবে বেশিরভাগের প্রত্যাশিত যে শান্তি, তা প্রতিষ্ঠায় হামাস বা ইসরায়েল কেউই কোনো আগ্রহ দেখাচ্ছে না।

অপরদিকে ১৭ হাজার মানুষ জাতিসংঘের কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংস্থাটি। এদিকে গাজা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইসরায়েলি হামলায় নিহতের সংখ্যা ১শ’ ৭২ ছাড়িয়েছে।

জাতিসংঘ জানিয়েছে, গাজায় নিহতের মাঝে ৭৭ শতাংশ সাধারণ মানুষ। সংস্থাটি যুদ্ধবিরতি এবং শান্তি আলোচনার আহ্বান জানিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই