মেইন ম্যেনু

নায়িকা হওয়ার স্বপ্নে বাড়ি ছেড়েছে ৪র্থ শেণির ৩ ছাত্রী!

ইচ্ছা ছিল নায়িকা হওয়ার। সে উদ্দেশ্যে তাদের বাড়ি থেকে পালানোর চেষ্টা। প্রথমে ঢাকায় গিয়ে অন্যের বাসাবাড়িতে কয়েক মাস কাজ করে টাকা উপার্জন। এরপর ভারতে গিয়ে নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন। কিন্তু স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে গেলো। ধরা পড়ে যাওয়ায় নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন ভেস্তে গেলো তাদের।
নায়িকা হওয়ার স্বপ্নে বিভোর ওই তিনজন হলেন পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল গ্রামের ময়নাল প্রামাণিকের মেয়ে মিম (১০), বেজপাটিয়াতা গ্রামের লতিফ মৃধার মেয়ে লতা (১০) ও কর্নিপাড়ার আলতাফ হোসেনের মেয়ে আতিকা (১১)। তারা সবাই হান্ডিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী।
হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বি এম ইমদাদুল হক জানান, রবিবার দুপুরে ১২টার দিকে অভিভাবকহীন অবস্থায় সিভিল পোশাকের এক শিশুর সঙ্গে স্কুলের পোশাকে আরও দুই শিশু হাটিকুমরুল গোলচত্বর এসে ঢাকায় যাবার জন্য বাসে ওঠার চেষ্টা করে। গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় স্থানীয়রা তাদের থানায় হস্তান্তর করে।
থানা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, নায়িকা হওয়ার জন্য স্বপ্রণোদিত হয়ে ঢাকায় যাবার উদ্দেশে তারা বাড়ি থেকে বের হয়েছে। তারা প্রথমে ঢাকায় গিয়ে বাসাবাড়িতে ৩/৪ মাস কাজ করে টাকা সংগ্রহ করে ভারতে গিয়ে নায়িকা হবে।
ওই ছাত্রীরা পুলিশকে আরও জানায়, তারা কারও প্ররোচনায় বা কারও প্রলোভনে বাড়ি থেকে পালায়নি।
বিষয়টি চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল পুলিশ তদন্তকেন্দ্রকে জানানো হলে বিকেল ৪টার দিকে তদন্তকেন্দ্রর কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) গাজী নুরুল ইসলাম স্কুলের সহকারী শিক্ষক আলম হোসেন ও তিন ছাত্রীর স্বজনদের খবরে দেন। পরে হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানা থেকে তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।





মন্তব্য চালু নেই