মেইন ম্যেনু

দিল্লিতে নিহত সেনাসদস্যের মেয়েকে ‘ধর্ষণের হুমকি’

ভারতের কারগিল যুদ্ধে নিহত সেনাসদস্য ক্যাপ্টেন মানদিপ সিংয়ের মেয়ে গুরমেহের কাউর; পড়ছেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে। সম্প্রতি তিনি ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বিজেপির অঙ্গসংগঠন অখিল ভারত বিদ্যার্থী পরিষদের (এভিবিপি) বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। জবারে গুরমেহেরকে ‘ধর্ষণের হুমকি’ দেওয়া হয়েছে।

রোববার একটি প্রতিবেদনে হিন্দুস্তান টাইমস এ তথ্য জানায়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে গুরমেহের বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আমাকে অনেক হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আমি মনে করি, এটা খুবই ভয়ংকর, যখন কেউ আপনাকে নাশকতা বা হত্যার হুমকি দেয়।’

এভিবিপিকে উদ্দেশ করে গুরমেহের বলেন, ‘জাতীয়তাবাদের নামে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া ঠিক না।’

খবরটি পৌঁছায় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কাছেও। অন্যদের মতো সহানুভূতি জানান তিনিও। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে তিনি লেখেন, ‘এটা শুনে রাখেন। এটা বিজেপি। তারা আমাদের দেশ ধ্বংস করে দেবে। তাদের গুণ্ডাবাজির বিরুদ্ধে সবার সোচ্চার হতে হবে।’

গত বৃহস্পতিবার দিল্লি ইউনিভার্সিটির রামজাস কলেজে বামপন্থীদের ছাত্রসংগঠন এআইএসএ ও এবিভিপি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। কলেজে একটি সেমিনারে উমার খালিদ ও শেহলা রসিদ নামের দুই শিক্ষার্থীকে আমন্ত্রণ জানানোকে কেন্দ্র করে ওই সংঘর্ষ বাধে। পরে সেমিনারটি প্রত্যাহার করা হয়।

ওই সংঘর্ষের পর গুরমেহের তাঁর ফেসবুক প্রোফাইল ছবি পরিবর্তন করেন। ওই ছবিতে তাঁকে একটি প্ল্যাকার্ড হাতে দেখা যায়। প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘আমি এবিভিপিকে ভয় পাই না। আমি একা নই। ভারতের প্রত্যেক শিক্ষার্থী আমার সঙ্গে আছে।’






মন্তব্য চালু নেই