মেইন ম্যেনু

তৃণমূলের স‌ঙ্গে সম্পর্ক শেষ, রাজ্যসভা থেকে মিঠুনের পদত্যাগ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে সব সম্পর্ক চুকিয়ে রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে দিলেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।

অভিনয়ের পাশাপাশি সমাজসেবার সঙ্গে যুক্ত ছিলেনেএ অভিনেতা। মিঠুনকে রাজনীতিতে এনেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে মিঠুনের রাজনৈতিক জীবন দীর্ঘ হল না।

মমতার দলের টিকিটেই রাজ্যসভায় যান মিঠুন। কিন্তু রাজ্যসভায় নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কয়েকদিন সংসদে গিয়েছিলেন হিন্দি ও বাংলা সিনেমার এ অভিনেতা।

পরে অর্থলগ্নি সংস্থার অনিয়ম নিয়ে তদন্তের সূত্রে মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। এরপর আর সংসদে যাননি এ বাঙালি। অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে দফায় দফায় ছুটি নিয়েছেন সংসদ থেকে।

এ বার পাকাপাকিভাবে রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে দিলেন মিঠুন।

দীর্ঘ অভিনয় জীবনে মিঠুনের বিরুদ্ধে কখনও কোনো দুর্নীতির অভিযোগ ওঠেনি। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের সঙ্গে বিভিন্ন চিটফান্ড সংস্থার নাম জড়ানোর পর তার নামও জড়িয়ে যায়।

পরে একটি চিটফান্ড সংস্থার অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য নেয়া পারশ্রমিকের টাকাও ইডিকে ফিরিয়ে দেন মিঠুন। এর পরেই রাজনীতি থেকে দূরে সরে যান তিনি।

তখন থেকেই গুঞ্জন শুরু হয় পদত্যাগ করবেন মিঠুন। তবে এ নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথাও বলেননি তিনি।

রাজ্যসভায় ২০২০ সালের এপ্রিলে তার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা।






মন্তব্য চালু নেই