মেইন ম্যেনু

তিতাসে আ.লীগের ত্রিমুখী সংঘর্ষে কর্মী নিহত

কুমিল্লার তিতাসে আওয়ামী লীগের তিন গ্রুপের সংঘর্ষে আওয়ামী লীগ কর্মী নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে অন্তত ৫ জন।

শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে জেলা সদর থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে তিতাস উপজেলার কলাকান্দি বাজার এলাকায় এ সংঘর্ষ হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

নিহত আওয়ামী লীগ কর্মীর নাম রিয়াজুল করীম (৪৫)। তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ইব্রাহীম গ্রুপের সদস্য ও একজন ভাঙ্গারি ব্যবসায়ী।

পরে রিয়াজুলের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ আকলিমা আক্তার নামে এক নারীকে আটক করেছে।

আধিপত্য ও দলীয় বিরোধের জের ধরে কর্মী নিহতের ঘটনায় এলাকার নেতাকর্মী সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে।

কুমিল্লা পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে জানা গেছে, বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তিতাস উপজেলা সদরের অদূরে কলাকান্দি বাজারের পাশে দলীয় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইব্রাহিম-নাছির-বাহরের নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগের তিনটি গ্রুপের মধ্যে প্রথমে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে তা চরম সংঘর্ষে রূপ নেয়। এসময় প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আওয়ামী লীগ কর্মী রিয়াজুল করীম নিহত হয়।

তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হান্নান বাংলামেইলকে জানান, দলীয় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ দিন ধরে আওয়ামী লীগের বিবদমান তিন গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর জের ধরে শুক্রবার দুপুরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ওসি হান্নান আরো জানান, রিয়াজুল করীমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পরে ঘটনাস্থল থেকে আকলিমা আক্তারকে আটক করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই