মেইন ম্যেনু

ট্রাম্পের মেয়ে ইভানকাকে নিয়ে চীনে হুড়োহুড়ি

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভানকাকে নিয়ে চীনে হুড়োহুড়ি বেঁধে গেছে।

কীসের জন্য এই হুড়োহুড়ি? টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইভানকার নামে বিভিন্ন পণ্যের ট্রেডমার্ক করতে অনেক প্রতিষ্ঠান আবেদন জানিয়েছে এবং এ প্রবণতা বেড়ে চলেছে।

মেদমুক্ত থাকার বড়ি থেকে অন্তর্বাস- ইভানকার নামে বিভিন্ন পণ্যের নাম রেখে সেগুলো ট্রেডমার্ক করার আবেদন করা হয়েছে। কারণ, ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে বলে কথা। চীনে ট্রাম্পের নামে অসংখ্য পণ্য ট্রেডমার্ক হলেও এবার তার মেয়ের জনপ্রিয়তা ও পরিচিতিকে কাজে লাগিয়ে পণ্যের বাজার ধরতে চায় উৎপাদন-প্রতিষ্ঠানগুলো।

নভেম্বর মাসে নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজয়ী হওয়ার পর তার মেয়ে ইভানকার জনপ্রিয়তা বেড়ে যায় চীনে। জনপ্রিয়তা বলতে তার পরিচিতি ছড়িয়ে পড়ে চীনের কোটি কোটি মানুষের কাছে। বিষয়টির ব্যবসায়িক সুবিধা তুলে নিতে ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েছে পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।

চীনে ইভানকার জনপ্রিয়তার মাত্রা এখন এতটাই তুঙ্গে যে, প্লাস্টিট সার্জারির একটি প্রতিষ্ঠান উদ্যোগ নিয়েছে, যারা চাইবেন তাদের ইভানকার মতো মুখাবয়ব করে দেবেন।

জনপ্রিয় ব্যক্তিদের মতো মুখ গড়িয়ে নিতে ভক্তরা দারস্থ হয় প্লাস্টিক সার্জারির হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোয়। এবার ইভানকাকে ঘিরে এ ব্যবসা শুরু হচ্ছে।

চায়না ট্রেডমার্ক অফিস জানিয়েছে, গত বছর ১০ নভেম্বর থেকে বছর শেষ পর্যন্ত ইভানকার নামে ২৫৮টি পণ্যের ট্রেডমার্ক নেওয়ার আবেদন জমা পড়েছে। ইভানকা, ইভানকা ট্রাম্প এবং এ দুটি শব্দের চীনা উচ্চারণের বিভিন্ন শব্দবদ্ধ দিয়ে ট্রেডমার্ক নেওয়ার আবেদন এসেছে।

চীনের এইসব প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সরাসরি বাণিজ্যিক সম্পর্ক নেই। তারপরও তারা ইভানকার নামে পণ্যের নাম রাখতে চাইছেন। এতদিন চীনে ট্রাম্পের নামে বিভিন্ন পণ্যের নাম রাখার ঝোঁক ছিল। যা এবার তার মেয়ের দিকে গড়িয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই