মেইন ম্যেনু

ট্রাম্পের জয়ে যৌন ইচ্ছা কমে গেছে আমেরিকার নারীদের!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জিতেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার কাছে পরাজয় মেনে নিতে হয়েছে হিলারি ক্লিনটনকে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের এই ফলাফলের প্রভাব এসে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত মার্কিন দম্পতিদের যৌন জীবনেও। লস অ্যাঞ্জেলেস সহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১২টি শহরে সমীক্ষা চালিয়ে এই তথ্য তুলে ধরেছে একটি সংস্থা, যারা মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য ও তাদের যৌন জীবন নিয়ে কাজ করে।

এই সংস্থাটির প্রধান কিম্বার্লি রেসনিকের নেতৃত্বে চালানো এই সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, হিলারি সমর্থকরা হারের পর থেকে এতটাই ভেঙে পড়েছেন যে, যৌনতাতেও তাদের অনীহা দেখা দিয়েছে। এর আগে একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছিল, সমগ্র আমেরিকায় সবচেয়ে বেশি সক্রিয় যৌন জীবন ছিল লস অ্যাঞ্জেলসের নাগরিকদের। সেখানেও যৌনতার হার ২৮ শতাংশ কমে গেছে। চমকে দেওয়ার মতো তথ্য এই যে, যৌনতায় সবচেয়ে বেশি অরুচি দেখা দিয়েছে নারীদেরই। তার প্রতিফলন পড়ছে তাদের দৈনন্দিন আচার আচরণে। অনেকে সহজেই বিরক্ত হয়ে পড়ছেন। আত্মীয় পরিজন বা সহকর্মীদের সঙ্গে খিটখিটে আচরণ করছেন।

এ প্রসঙ্গে কিম্বার্লি বলেন, ‘‌এর চেয়েও খারাপ নিদর্শন আছে। এমনও হয়েছে স্বামী ট্রাম্প সমর্থক আর স্ত্রী হিলারিকে সমর্থন করেন। ট্রাম্পের জয়ের পরে তাদের মধ্যে বিচ্ছেদের পরিস্থিতিও তৈরি হয়েছে। ‌ভোটের আগে থেকেই একের পর এক যৌন কেলেঙ্কারিতে জড়িয়েছেন ট্রাম্প। ভোটে জিতলেও বিরোধীদের মন থেকে কেলেঙ্কারিগুলোর স্মৃতি মুছে ফেলতে পারেননি ট্রাম্প। সেগুলোই বদ্ধমূল হয়ে বসে গিয়েছে। নিকটজনদের কেউ ট্রাম্পকে সমর্থন করছেন দেখলেই পরিবেশ গম্ভীর হয়ে যাচ্ছে। ’‌






মন্তব্য চালু নেই