মেইন ম্যেনু

ঝালকাঠিতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ২৮ লাখ টাকা ছিনতাই

ঝালকাঠিতে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ পরিচয়ে দুই বিকাশকর্মীর ২৮ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে সদর উপজেলার ছত্রকান্দা নামক স্থানে এ ঘটনাটি ঘটে।
বিকাশের ঝালকাঠি অফিসের ব্যবস্থাপক সুমন বলেন, ‘বিকাশ এজেন্টদের ছোট ছোট দোকানগুলোতে ব্যবসায়ীক লেনদেনের জন্য তাদের অফিসের দুইকর্মী (বিক্রয় প্রতিনিধি) সরদার কবির আহমেদ (৪৭) ও রুবেল মৃধা (২৭) মোটরসাইকেলে করে রাজাপুর হয়ে কাঠালিয়ার আমুয়ার উদ্দেশে যাত্রা করেন।
ছত্রকান্দা এলাকায় তাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে মাদক উদ্ধারের নামে একটি সাদা মাইক্রোবাসে উঠিয়ে নেয় কয়েকজন লোক। পরে তাদের কাছে থাকা ২৮ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে বেলা একটার দিকে শেখেরহাট বাজারে নামিয়ে দেয়। পরে মোবাইলফোনে তাদের ছিনতাইয়ের ঘটনা জানান ওই কর্মী।’
ছিনতাইয়ের কবলে পড়া সরদার কবির আহমেদ বলেন, ‘ছত্রকান্দায় পৌঁছলে একটি সাদা রঙের মাইক্রোবাস তাদের থামায়। গাড়ি থেকে নেমে সাদা পোশাকে দু’জন ব্যক্তি নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দেন।’
তিনি বলেন, ‘তাদের কাছে বাবা (ইয়াবা) ট্যাবলেট রয়েছে এমন অভিযোগে তাদের গাড়িতে উঠতে বলেন। কিন্তু গাড়িতে না উঠতে চাইলে তাদের পিস্তল দেখিয়ে গাড়িতে তুলে নেন। এরপর গাড়ির মধ্যে থাকা ড্রাইভারসহ আরও ৬জন নতুন গামছা দিয়ে তাদের চোখ বেঁধে হাতে হ্যান্ডকাফ পরিয়ে মারপিট করে। এ সময় দুটি ব্যাগে থাকা বিকাশ লেনদেনের ২৮ লাখ টাকা নিয়ে যান তারা।’
কবির আরও বলেন, ‘মাইক্রোবাসটি চালিয়ে সদর উপজেলার বারুহার গ্রামের রাস্তার পাশে একটি জঙ্গলে হাত ও চোখ বেঁধে তাদের ফেলে রেখে যান।
এ সময় কয়েকজন স্কুলছাত্র গাড়ি থামতে দেখে কাছে আসতে চাইলে তাদের অস্ত্র দেখিয়ে দূরে সরিয়ে দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বিকাশ অফিসে খবর দেয় বলে জানান কবির।
খবর পেয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শীলমনি চাকমা ও এসআই আ. হালিম তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
ঝালকাঠি পুরিশ সুপার মো. মজিদ আলী বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
খবর শুনে হাসপাতালে যান সহকারী পুলিশ সুপার আফম আনোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, ‘ডিবি পুলিশ পরিচয়ে কারা এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটিয়েছে তা তদন্ত করে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’






মন্তব্য চালু নেই