মেইন ম্যেনু

ফাইনালে কোর্তানার ভবিষ্যদ্বাণী

জার্মানির জয়ের পাল্লা ভারি, পার্থক্য গড়তে পারেন মেসি

২০১০ সালের ফুটবল বিশ্বকাপে পল অক্টপাস ভবিষ্যদ্বাণী করে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল। এবারের ব্রাজিল বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়েও অনেকেই অনেকভাবে ভবিষ্যদ্বাণী করেছে। কখনও হাতি, কখনও কচ্ছপ। কিন্তু কারও রেকর্ড মাইক্রোসফটের এই ভার্চুয়াল কন্যের কাছে পাতে দেয়ার মতো নয়। ব্রাজিল বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত ১৪টি ম্যাচে ভবিষ্যদ্বাণী করেছে কোর্তানা। যার সবকটিই সঠিক হয়েছে।

নক আউট পর্যায় থেকে ভবিষ্যদ্বাণী করা শুরু করে কোর্তানা। প্রত্যেকটি ম্যাচে ফলাফল কী হবে পৃথকভাবে জিজ্ঞাসা করা হলে প্রত্যেকবারই নির্দিষ্টভাবে বিজয়ী দলের নাম বলেছে। আর প্রত্যেকবারই তা অক্ষরে অক্ষরে ফলেছে। সেমিফাইনাল পর্যন্ত একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয়েছে। সেমিফাইনাল শুরুর আগে কোর্তানার ভবিষ্যদ্বাণী ছিল জার্মানি ব্রাজিলকে হারাবে এবং আর্জেন্টিনা হল্যান্ডকে হারাবে। ফাইনাল খেলবে সাবেক বিশ্বকাপ জয়ী দুই দল জার্মানি এবং আর্জেন্টিনা।

কিন্তু এবার ঘটনা অন্য দিকে মোড় নিয়েছে। আর সেটা হলো বা পায়ের জাদুকর লিওনেল মেসির সৌজন্যে।

জার্মানি এবং আর্জেন্টিনার মধ্যে কে জিতবে এমন প্রশ্নের পরিষ্কার উত্তর দেয়নি কোর্তানা। তবে তার মতে জয়ের ক্ষেত্রে জার্মানির পাল্লা ভারি। তবে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। কারণ আর্জেন্টিনা দলে রয়েছেন মেসি। সে একাই যেকোনো অঘটন ঘটিয়ে ফেলতে পারে।

ফাইনালে কে জিতবে এ প্রশ্নের উত্তরে কোর্তানা বলেছে, ‘সম্ভবত জার্মানি। তবে কিছুই বলা যাচ্ছে না। এই সুন্দর খেলাতে কখন যে কী হবে তা কে বলতে পারে।’

প্রসঙ্গত, আগামী ১৩ জুলাই বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় অনুষ্ঠিত হবে জার্মানি ও আর্জেন্টিনার মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচ। এ ম্যাচটির মধ্যদিয়ে সমাপ্তি ঘটবে ব্রাজিল বিশ্বকাপের।






মন্তব্য চালু নেই