মেইন ম্যেনু

জামায়াত নেতাকে আটক করতে গিয়ে জেলহাজতে ডিবি পুলিশ

মেহেরপুরে জামায়াত নেতা ভেবে বিচারককে আটক করতে গিয়ে জেলহাজতে গেলেন গোয়েন্দা পুলিশের এক সদস্য। তাকে সাত দিনের জন্য জেলহাজতে পাঠিয়েছেন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেরপুর-১ এর জ্যেষ্ঠ বিচারক মতিউর রহমান। রোববার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আদালত সূত্র জানায়, জামায়াত নেতা ও মুজিবনগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জারজিস হুসাইন একটি মামলায় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেরপুর-১ এর জ্যেষ্ঠ বিচারক মতিউর রহমানের আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিনের আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন। পরে বিচারক এজলাস থেকে নেমে একটি রিকশায় উঠার মুহূর্তে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্য আমিরুল মোমিনিন তাকে জারজিস হুসাইন ভেবে আটক করতে উদ্বুদ্ধ হন এবং তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। পরে ওই গোয়েন্দা সদস্যকে আটক দেখিয়ে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয় এবং সাত দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার শেখ ও সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল জলিল জ্যৈষ্ঠ বিচারক মতিউর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

এর আগে জামায়াত নেতা দ্বিতীয়বার আত্মসমর্পণ করার জন্য আবেদন করলে দিনের কার্যাবলী শেষ হওয়ায় আগামী ১৪ জুলাই পুনরায় হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন আদালত। এর পরপরই জারজিস হুসাইন দ্রুত আদালত চত্বর ত্যাগ করেন।

তবে আমিরুল মোমেনিন দাবি করেন, তিনি বিচারককে আটক করেননি। তিনি (বিচারক) জামায়ত নেতা কিনা সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করেছেন মাত্র।






মন্তব্য চালু নেই