মেইন ম্যেনু

জামায়াতের ইফতারে আ.লীগ

সিলেট জেলা আইনজীবীর সমিতির সভাপতি রুহুল আনাম মিন্টু। তিনি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি। এমনকি জেলা যুবলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটিতেও তিনি সিনিয়র সদস্য ছিলেন। তাকে বিভিন্ন সময় প্রগতিশীল আন্দোলন সংগ্রামে উপস্থিত হতে দেখা গেছে। কিন্তু এবার তিনি অতিথি হয়ে উপস্থিত হলেন সিলেট মহানগর জামায়াতের ইফতার মাহফিলে। তার উপস্থিতি দেখে ইফতার মাহফিলে উপস্থিত অনেকেই হতবাক হয়েছেন।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার নগরীর নয়া সড়কে মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারে সিলেট মহানগর জামায়াতের উদ্যোগে আয়োজন করা হয় ইফতার মাহফিলের। এতে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাদের আমন্ত্রণ করে জামায়াত। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরীকে এতে প্রধান অতিথি করা হয়। তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যও দিয়েছেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমির অধ্যক্ষ মসউদ খান, ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট এম এ রকিব, জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক ফজলুর রহমান, জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট নুরুল হক, মহানগর বিএনপির সভাপতি এম এ হক, বিএনপি নেতা নাসিম হোসাইন, ডা. শাহরিয়ার হোসেন, জেলা বিএনপির নেতা আলী আহমদসহ ১৮ দলীয় জোটের আরও অনেকেই।

১৮ দলীয় জোটের নেতারা জামায়াতের ইফতার মাহফিলে যোগ দিলেও আদর্শগত কারণে আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকে ওই ইফতার মাহফিলে যোগ দিতে দেখা যায়নি। তবে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও যুবলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সিনিয়র সদস্য অ্যাডভোকেট রুহুল আনাম মিন্টু অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন। এতে উপস্থিত অনেকেই হতবাক হয়েছেন। তবে রুহুল আনাম মিন্টুকে ইফতার মাহফিলে বক্তব্যের সুযোগ দেয়া হয়নি।

এ ব্যাপারে অ্যাডভোকেট রুহুল আনামের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘সমুদ্র জয় নিয়ে সরকার মিথ্যাচার করছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশের এক ইঞ্চি মাটি নিয়ে যারা মিথ্যাচার করে তাদের কোনো অধিকার নেই এ দেশের মানুষের প্রতিনিধিত্ব করার। তাই ঈদের পরে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন। সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধভাবে জালিম এ সরকারের পতন ঘটিয়ে এ দেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আল্লাহর ওপর আস্থা-বিশ্বাস যারা রাখে তাদের ওপর, তাদের পরিবারের ওপর জালিম এ সরকার জুলুম নির্যাতন চালাচ্ছে। তাই তাদের প্রতিহত করতে হবে।’

ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মহানগর জামায়াতের আমির অ্যাডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের।






মন্তব্য চালু নেই