মেইন ম্যেনু

জন্মদাতাকে ছাড়তে পারছে না বিএনপি : খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, ‘জন্মদাতাকে (জামায়াত) ছাড়তে পারছে না বিএনপি। কারণ, একাত্তরের পরাজিত শক্তি জামায়াতে ইসলামীর গর্ভ থেকেই বিএনপির জন্ম। তাই জন্মদাতাকে তারা ছাড়তে পারছে না।’
শনিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির বীরউত্তম খাজা নিজামউদ্দিন মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত ‘চলমান রাজনীতি-মিথ্যাচারের রাজনীতি পরিহার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
কামরুল বলেন, ‘বিএনপির আন্দোলনের সাংগঠনিক শক্তি নেই। তাই তাদের আন্দোলন করার মুরদও নেই।’
তিনি আরও বলেন, ‘গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে বিএনপি না এসে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এখন তাদের যে সাংগঠনিক অবস্থা তাতে নতুন করে জনগণকে সম্পৃক্ত করার দক্ষতা নেই। তারা এখন রাজনৈতিকভাবে সংগঠিত হতে না পেরে দেশকে জঙ্গিরাষ্ট্রে পরিণত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।’
আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত মিলে যাতে জঙ্গিরাষ্ট্রে বাংলাদেশকে পরিণত করতে না পারে, সে জন্য সকলকে আরও ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’
তিনি বলেন, ‘জন্মদাতাকে (জামায়াত) ছাড়তে পারছে না বিএনপি। কারণ, একাত্তরের পরাজিত শক্তি জামায়াতে ইসলামীর গর্ভ থেকেই বিএনপির জন্ম। তাই জন্মদাতাকে তারা ছাড়তে পারছে না।’
মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে কোনো রাজনৈতিক সঙ্কট আছে বলে মনে হয় না। তাই এ মুহূর্তে নির্বাচন ও সংলাপের প্রয়োজন নেই।’
পদ্মাসেতু সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘যখন পদ্মা সেতু হওয়ার পথে ছিল তখন দেশের একজন স্বনামধন্য ব্যক্তি কূটকৌশল করে বাধা সৃষ্টি করেছিলেন। এখন পদ্মা সেতু হচ্ছে। আশা করি ২০১৮ সালের মধ্যেই পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে চলতে পারব।’
সংগঠনের সভাপতি মো. জিন্নাত আলী খান জিন্নাহর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, কৃষক লীগের সহ-সভাপতি এম এ করিম, বাংলাদেশ স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি শাহজাহান আলম সাজু প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই