মেইন ম্যেনু

বিবিসি সংলাপে হান্নান শাহ্

‘ছাত্রলীগ-যুবলীগ দিয়ে বিরোধী দলকে দমাতে চায় সরকার’

সরকার ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সন্ত্রাসীদের দিয়ে বিরোধী দলকে দমন করতে চায়। তাই তাদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। এমন অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে বিবিসি বাংলাদেশ সংলাপে তিনি এসব কথা বলেন। সংলাপের এ পর্বে প্যানেল আলোচক হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর এবং সাংবাদিক ও টেলিভিশন উপস্থাপক কাজী জেসিন।

বিবিসি সংলাপের এ পর্বে প্রথম প্রশ্ন ছিল, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য সরকারের দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে কি না।

জবাবে হান্নান শাহ বলেন, “আওয়ামী লীগের হাতে এখন যে অস্ত্র আছে, অন্য কোনো দলের হাতে কিন্তু এখন আর সেই অস্ত্র নেই। কোনো দৃশ্যমান উদ্যোগ নিচ্ছে না সরকার। কারণ সরকার ছাত্র বা যুবলীগের সন্ত্রাসীদের দিয়ে বিরোধী দলকে দমন করতে চায়।”

হান্নান শাহ বলেন, “সন্ত্রাস যে করে সে-ই সন্ত্রাসী। সে ছাত্রদল, ছাত্রলীগ বা শিবির যেই হোক না কেন, তাদের বিচার হওয়া উচিত।”

তবে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, “ছাত্রলীগের ভেতর জামায়াত-শিবিরসহ অন্যান্য নৈরাজ্যবাদী শক্তির অনুপ্রবেশ ঘটেছে। তাই সংগঠনটিতে এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।” তা না হলে এমন ঘটনা হতো না বলে মনে করেন তিনি।

তানিয়া আমীর বলেন, “নিয়ন্ত্রণ করতে হবে কেন? কারণ বর্তমানের ছাত্রসংগঠনগুলোর মধ্যে কোনো রাজনৈতিক আদর্শ নেই। তাদের কোনো নেতৃত্ব নেই। তাই তারা নতুনদের দলে টানতে পারছে না।”

বিবিসি মিডিয়া অ্যাকশন ও বিবিসি বাংলা যৌথভাবে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেন ওয়ালিউর রহমান মিরাজ এবং উপস্থাপনা করবেন আকবর হোসেন।






মন্তব্য চালু নেই