মেইন ম্যেনু

চুরির দায়ে পিঁপড়াতে খুবলে খেল মা–ছেলেকে!

গাড়ির চুরির সন্দেহে পিঁপড়া দিয়ে খাওয়ানো হল মা–ছেলেকে। ‌বলিভিয়ায় কারানাভি শহরে গত শনিবার এই নারকীয় ঘটনাটি ঘটেছে। বিষয়টি সামনে আসতেই বেশ হইচই পড়ে গিয়েছে।

‌বলিভিয়ার রাজধানী লাপাজ থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে কারানাভি শহরে একটি গাড়ি চুরি গিয়েছিল। সেই চুরির সন্দেহ গিয়ে পড়ে এক কিশোরের ওপরে। তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে চলছিল মারধর। সেই কিশোরকে বাঁচাতে গিয়েছিলেন তার মা। ৫২ বছর বয়সী সেই নারীকেও রেহাই দেয়নি উত্তেজিত জনতা। তাকেও গাছের সঙ্গে বেঁধে দেওয়া হয়। তারপর তাদের দেহের ওপরে ছেড়ে দেওয়া দেওয়া হয় মাংসাশী পিঁপড়া। পিঁপড়ার কামড়ে গুরুতর আহত হন সেই নারী এবং তার ছেলে। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয় পুলিস।

কিন্তু হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়, তাদের দেহের বিভিন্ন অংশ থেকে প্রচুর রক্তপাত হয়েছে, বিশেষত কণ্ঠনালীর অনেকটাই খেয়ে নিয়েছে পিঁপড়ারা। একরাত চিকিৎসার পরেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন মা ও ছেলে দুইজনই। একই সঙ্গে মারধর করা হয়েছিল সেই নারীর আরও দুই সন্তানকে। তবে গুরুতর আহত হলেও তারা প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন বলে জানা গেছে। ‌‌‌






মন্তব্য চালু নেই