মেইন ম্যেনু

‘চিকিৎসা শেষ না হলে’ ফিরছেন না তারেক

বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ‘চিকিৎসা শেষ না হওয়া পর্যন্ত’ দেশে ফিরছেন না বলে তার মা ও দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া জানিয়েছেন।

সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, “ওর (তারেক রহমান) শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে ভালো। তবে এখনো পুরোপুরি ভালো নয়। চিকিৎসা চলছে। নিয়মিতি ডাক্তারের নজরদারির মধ্যে তাকে থাকতে হচ্ছে। সেখানে সেটাই নিয়ম।

ফাইল ছবি ফাইল ছবি “চিকিৎসা শেষ না হলে সে (তারেক রহমান) দেশে আসতে পারবে না। ডাক্তারা সম্পূর্ণ সুস্থ বলে অনুমতি দিলেই সে দেশ আসতে পারবে।”
সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে ২০০৭ সালের ৭ মার্চ তারেক রহমান গ্রেপ্তার হন। তার বিরুদ্ধে প্রায় এক ডজন দুর্নীতির মামলা হয়। সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিন নিয়ে পরের বছরের সেপ্টেম্বর মাসে চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্য যান তিনি।

স্ত্রী-সন্তান নিয়ে তখন থেকে সেখানেই রয়েছেন তারেক। সম্প্রতি সেখানে দলীয় কয়েকটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে নতুন করে আলোচনায় আসেন খালেদা ও জিয়াউর রহমানের বড় ছেলে তারেক রহমান।

খালেদার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোও তত্ত্বাবধায়ক আমলে গ্রেপ্তার হওয়ার পর উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে চিকিৎসার জন্য ব্যাংকক যান। বর্তমানে তিনি মালয়েশিয়ায় আছেন বলে বিএনপি নেতারা জানিয়েছেন।

ঈদে দুই ছেলের সঙ্গে কথা হয়েছে কি না জানতে চাইলে খালেদা জিয়া বলেন, “ঈদ সেখানে আগে হয়ে গেছে। তাদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ওরা ( তারেক ও কোকো) ভালো আছে। আগের চেয়ে ভালো।”






মন্তব্য চালু নেই