মেইন ম্যেনু

চাকরির সাক্ষাতে যৌন আলোচনা!

‘চাকরির সাক্ষাতে একটু-আধটু যৌন আলোচনা ভাল! এটা নিয়ে নারীদের মনে করার কিছু নেই।’ দক্ষিণ কোরিয়ার নারী চাকরি প্রত্যাশীদের এ উপদেশই দিলেন খোদ দেশটির শ্রমমন্ত্রী।
সরকারি চাকরিতে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় নারীরা কীভাবে উত্তর দেবেন এমন একটি দিক নির্দেশনা দিতে গিয়ে বিতর্কিত এ মন্তব্য করেন তিনি। এ নিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলোতে চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়।

যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে এমনিই দেশেটিতে বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা সভা-সমাবেশ করে আসছে। মন্ত্রীর এমন বক্তব্য নিঃসন্দেহে তা উসকে দেবে।

মন্ত্রী বলেন, অনেক সময় মজা করার জন্য ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করা জরুরি হয়ে ওঠে। অনেক নারী বিয়ে করার পর তাদের চাকরি ছেড়ে দেন। এগুলো সাক্ষাতের সময় তুলে আনা দরকার। কর্মক্ষেত্রে সব নারী কর্র্মীকে সর্বোচ্চ ভাল কিছু দেওয়ার প্রতিজ্ঞা করা উচিত।

তাই যেকোনো নারী কর্মীর যৌন বিষয়ে প্রশ্ন করা উচিত। এর মধ্যে বিয়ে ও সন্তান নেওয়ার পরিকল্পনার বিষয়টিও থাকা উচিত। এ প্রশ্নগুলো তাদের খোলা মনে মেনে নেওয়ার মানসিকতাও তৈরি করার কথা উপদেশপত্রে তুলে ধরেন তিনি। ইতিমধ্যে দেশটির নারী সংগঠনগুলো মন্ত্রীর এ বক্তব্যকে বৈষম্যমূলক হিসেবে অভিযোগ করেছে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি।






মন্তব্য চালু নেই