মেইন ম্যেনু

দ্বিতীয় দফা গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত হাইকোর্টে স্থগিত

আগামী ১ জুন থেকে কার্যকর হতে যাওয়া দ্বিতীয় পর্যায়ের গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তের ওপর ৬ মাসের স্থগিতাদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী বিচারপিত জেবিএম হাসানের গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সাইফুল আলম।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি কারওয়ানবাজারে বাংলাদেশ অ্যানার্জি রেগুলেটরি কমিশন গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়।

সংস্থাটি জানায়, ১ মার্চ থেকে বাসাবাড়িসহ সব ধরনের গ্যাসের দাম বাড়ছে। ১ মার্চ ও ১ জুন দুই ধাপে এ মূল্য বাড়ানো হবে। আবাসিকে ১ মার্চ থেকে এক বার্নার চুলার মূল্য হবে ৭৫০ টাকা এবং জুন থেকে সেটি হবে ৯০০ টাকা। এছাড়া ১ মার্চ থেকে দুই বার্নারের চুলার মূল্য হবে ৮০০ টাকা এবং ১ জুন থেকে সেটি ৯৫০ টাকা হবে।

এছাড়াও যানবাহনে ব্যবহৃত রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাসের (সিএনজি) দাম ১ মার্চ থেকে প্রতি ঘনমিটার ৩৮ টাকা এবং ১ জুন থেকে ৪০ টাকা করা হবে।

গণবিজ্ঞপ্তিতে গৃহস্থালি ও সিএনজিসহ বিদ্যুৎ, সার ও শিল্প খাতেও গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়া হয়।

এর আগে ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাসের দাম বাড়ায় বিইআরসি। বর্তমানে আবাসিক ব্যবহারে দুই চুলার জন্য ৬৫০ টাকা ও এক চুলার জন্য ৬০০ টাকা দিতে হয় ভোক্তাদের। তারও আগে দুই চুলার জন্য ৪৫০ টাকা এক চুলার জন্য ৪০০ টাকা নির্ধারিত ছিল।






মন্তব্য চালু নেই