মেইন ম্যেনু

গাজা হামলায় নিরাপত্তা পরিষদের উদ্বেগ প্রকাশ

গাজায় ইসরায়েলী সেনা হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। গাজায় বর্বরতম হামলার ১৩ দিনের মাথায় রোববার এই উদ্বেগ প্রকাশ করলেন পরিষদের সদস্যরা। রোববার গাজায় ইসরায়েলী হামলায় আরো শতাধিক ফিলিস্তিনী নিহত হয়েছে।

গত দু সপ্তাহের এই হামলায় ইতিমধ্যে পাঁচ শতাধিক ফিলিস্তিনী নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

রোববার রাতে গাজার ঘটনা নিয়ে আলোচনার জন্য এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে মিলিত হয় নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি স্থায়ী সদস্য দেশ। বৈঠক শেষে জাতিসংঘে নিযুক্ত রুয়ান্ডার রাষ্ট্রদূত ইয়ুগেন গাসানা সাংবাদিকদের জানান, নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা গাজায় হতাহতের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং তারা অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ করারও দাবি জানিয়েছেন।

রোববার গাজার শেজাইয়া অঞ্চলে ইসরায়েলী হামলায় ৬০ জনের বেশি ফিলিস্তিনী নিহত হওয়ার পর জর্দানের অনুরোধে ওই জরুরি বৈঠকের আয়োজন করে নিরাপত্তা পরিষদ। ওই দিন হামাসের যোদ্ধাদের সঙ্গে লড়াইয়ে ১৩ ইসরায়েলী সেনাও নিহত হয়।

রাষ্ট্রদূত গাসানা আরো জানিয়েছেন, নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা দু পক্ষের প্রতি আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি সম্মান জানিয়ে বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষা করারও আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া তারা গাজার মানবিক পরিস্থিতি উন্নত করার দাবি জানিয়েছেন।

এর আগে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন শেজাইয়া হত্যাকাণ্ডকে ‘নৃশংস কর্মকাণ্ড’ হিসেবে উল্লেখ করে সত্ত্বর যুদ্ধ বন্ধের দাবি জানিয়েছিলেন। ইসরায়েল ও ফিলিাস্তনীদের মধ্যে একটি অস্ত্রবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরের বিষয়ে দেন দরবার করতে বর্তমানে তিনি মধ্যপ্রাচ্য সফরে রয়েছেন। রোববার তিনি কাতার সফর করেছেন। এরপর তিনি একে একে কায়রো, জেরুজালেম ও রামাল্লা সফর করবেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই