মেইন ম্যেনু

খালেদা জিয়া বুঝেছে শেখ হাসিনা কী জিনিস

ক্ষমতা থেকে দূরে ছিটকে গিয়ে বিএনপি চেয়পারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ঠিকই বুঝেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কী জিনিস। এমনই মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

শনিবার দুপুরে আওয়ামী লীগের ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শেষদিনের সমাবেশে দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা এ কথা বলেন।

নেতাকমীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, ‘আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

আমু বলেন, ‘গণতন্ত্রের দাবিতে যে নূর হোসেন আন্দোলন করেছিলেন, আর সেই নুর হোসেনকে যারা হত্যা করেছিল, দেশের গণতন্ত্রকে ক্ষতবিক্ষত করেছিল সেইসব ব্যক্তিরাই এখন গণতন্ত্র নিয়ে কথা বলে।’

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা এখন অতীত ইতিহাস। আর কোনোদিন এ ব্যবস্থা ফিরে আসবে না।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেত্রীকে সংলাপে ডাক দিয়েছিলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু তিনি সাড়া না দিয়ে দেশকে ব্যর্থরাষ্ট্র বানাতে চেয়েছিলেন। খালেদা জিয়া হেরে বুঝতে পারছে শেখ হাসিনা কী জিনিস। এখন তিনি ঠিকই সংলাপ চান, কিন্তু সংলাপ হবে না। নির্বাচন হবে আগামী ২০১৯ সালে। তার আগে আগে সংলাপ হতে পারে।’

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আন্দোলনের মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করবেন না। এতে বিনিয়োগ বাধাপ্রাপ্ত হবে। উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে যাবে দেশ।’

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের শিকড় অনেক গভীরে সহজে আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করা যাবে না। যতোদিন দেশের জনগণ থাকবে ততোদিন আওয়ামী লীগ থাকবে।’






মন্তব্য চালু নেই