মেইন ম্যেনু

খালেদার মামলার পরবর্তী শুনানি ২৪ নভেম্বর

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বিরুদ্ধে দুর্নীত দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও চ্যারিটেবল ট্রাস্টের দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ২৪ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের বিশেষ আদালতে উভয় পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে তুমুল হট্টগোলের এক পর্যায়ে বিচারক এ আদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোশারফ হোসেন কাজল বলেন, ‘আমরা সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য বার বারই আবেদন করে আসছি। আর আসামি পক্ষের আইনজীবীরা হাইকোর্টের অজুহাত দিয়ে মামলার কার্যক্রম পিছিয়ে দিচ্ছেন। তারা হাইকোর্টের কোনো আদেশ দেখাতে পারছেন না। আদালত পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজনীয় কোনো কাগজপত্রও দেখাতে পারছেন না। আদালত শুনানি শেষে পরবর্তী তারিখ ঠিক করেছেন এবং ওই দিন খালেদা জিয়াকে আদলতে উপস্থিত হতে বলেছেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আজও মামলার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু মামলাটি উচ্চ আদালতে পেন্ডিং আছে, তাই এ মামলার কার্যক্রম এভাবে চলতে পারে না। আমরা আদালতে এ কথা বলেছি। আদালত আবেদন মঞ্জুর করেছেন এবং পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

এর আগে মামলা দুটিতে হাজিরা দিতে রোববার বেলা ১১টার দিকে আদালতে পৌঁছান বিএনপি চেয়ারপারসন। আদালতের উদ্দেশে সকাল ১০টা ২০ মিনিটে বাসা থেকে বের হন খালেদা জিয়া।

রোববার সকালে খালেদার আদালতে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার। এর আগে শনিবার রাত রাত পর্যন্ত আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের বিশেষ আদালতে রোববার হাজিরা না দেওয়ার সিদ্ধান্ত ছিল খালেদা জিয়ার।

পরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক মাহবুব উদ্দীন খোকনের সঙ্গে বৈঠক করেন বেগম জিয়া। এই বৈঠকের পরেই তার পক্ষ থেকে হাজিরা দেওয়ার সিদ্ধান্ত আসে।

প্রসঙ্গত, আর আগে গত ২৬ অক্টোবর বেগম খালেদা জিয়া নিরাপত্তাজনিত কারণে আদালতে হাজিরা দেননি।






মন্তব্য চালু নেই