মেইন ম্যেনু

খালেদাকে স্বাগত জানিয়ে ব্যতিক্রমী তোরণ

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নীলফামারী আগমনকে কেন্দ্র করে তাকে স্বাগত জানিয়ে শতাধিক তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে। এর মধ্যে নীলফামারী ঢোকার পথে সৈয়দপুর মোড়ে ব্যতিক্রমী ও দৃষ্টিনন্দন একটি তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে। আর তা দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় করেছে সেখানে।

এছাড়া বগুড়া থেকে রংপুর, সৈয়দপুর হয়ে নীলফামারী অভিমুখী সড়কে শতাধিক তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে। এসব তোরণে বিএনপির প্রধানকে স্বাগত জানানোর পাশাপাশি সরকারকে পদত্যাগ করে আগাম নির্বাচনের দাবি জানানো হয়েছে।

দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সৌজন্যে এসব তোরণ ছাড়াও রাস্তার দুই পাশে প্ল্যাকার্ড আর ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে। অনেকটা নির্বাচনের আমেজে নেতাকর্মী-সমর্থকদের বাঁধভাঙা উল্লাস লক্ষ্য করা গেছে।

এদিকে জনসভা এলাকা কানায় কানায় পূর্ণ হওয়ায় বাসে-ট্রাকে-লেগুনায় হাজার হাজার নেতা-কর্মী জনসভাস্থলে আসতে না পেরে তারা সেখানেই অবস্থান করে তাদের নেত্রীর বক্তব্য শুনছেন।

নির্দলীয় সরকারের অধীনে সব দলের অংগ্রহণে একটি প্রতিনিধিত্বমূলক আগাম নির্বাচনের দাবিতে দেশব্যাপী জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে গণসংযোগে নেমেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন। এর অংশ হিসেবে নীলফামারীতে জনসভার আয়োজন করেছে ২০ দলীয় জোট।

চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনকে গতিশীল করতে দেশব্যাপী গণসংযোগের অংশ হিসেবে আরও তিনটি জেলায় জনসভা করবেন বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। আগামী ৩০ অক্টোবর নাটোরে, ৬ অথবা ৭ নভেম্বর কুমিল্লায় এবং ১২ নভেম্বর কিশোরগঞ্জে ২০ দলের জোটের উদ্যোগে মহাসমাবেশ হওয়ার কথা রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই