মেইন ম্যেনু

কুপ্রস্তাব দিয়েছিল টিভি চ্যানেলের কর্তা, বিস্ফোরক অভিযোগ অভিনেত্রীর

ভারতের দক্ষিণে মালয়ালি অভিনেত্রী ভাবনাকে চলন্ত গাড়িতে শারীরিক হেনস্তার ক্ষত এখনও টাটকা। তারই মধ্যে এবার তামিল অভিনেত্রী ভারালক্ষ্মীর অভিযোগে সরগরম হল ভারতের দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। সোমবার এক বিস্ফোরক অভিযোগে তিনি বলেছেন, এক টিভি চ্যানেলের কর্তা তাকে কুপ্রস্তাব দিয়েছিল। তার এই অভিযোগেই ফের প্রশ্নের মুখে সেলেবদের নিরাপত্তা। কেন বারবার তারকারা এমন অপ্রীতিকর পরিস্থিতির শিকার হচ্ছেন, প্রশ্ন শিক্ষিত সমাজের।

সাবেক দক্ষিণী অভিনেতা তথা রাজনীতিবিদ শরতকুমারের মেয়ে ভারালক্ষ্মী শরতকুমার ভাবনার ঘটনার উদাহরণ টেনে মহিলাদের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে এমন অভিযোগ এনেছেন। তার অভিযোগ, এক বিখ্যাত টিভি চ্যানেলের প্রোগ্রামিং হেড এক বৈঠকে তাকে পরে দেখা করার অনুরোধ করে। এবং সেও কোনও কাজের সূত্রে নয়, বরং নিজের ইশারায় কুপ্রস্তাবই দিয়েছিল বলে অভিযোগ ওই অভিনেত্রীর।

নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে সেই বিতর্কিত কথোপকথনের সারাংশ পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। এমন অপমানকর প্রস্তাবের জন্য ওই অভিযুক্তকে দু-চার কথা শুনিয়ে চলে গিয়েছিলেন ভারালক্ষ্মী। অভিনেত্রীর বক্তব্য, ‘আমি একজন অভিনেত্রী। গ্লামার দুনিয়ার অংশীদার বলে যে কেউ আমার সঙ্গে অসম্মানজনক আচরণ করবে, তা হতে পারে না। এটা আমার জীবন, আমার শরীর এবং অবশ্যই আমার ইচ্ছা।’ তার অভিযোগ, মহিলাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার, শারীরিক হেনস্তা, সম্ভ্রমহানীর ঘটনা বেড়েই চলেছে। এটা অশনি সংকেত।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে মালয়ালি সুপারস্টার ভাবনাকে চলন্ত গাড়ির মধ্যে তার প্রাক্তন ড্রাইভার-সহ বেশ কয়েকজন শারীরিক হেনস্তা করে বলে অভিযোগ ওঠে। সেই দৃশ্য তারা ভিডিও করে তুলে রাখে বলে নায়িকার অভিযোগ। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ। তবে অভিনেত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে বহু দক্ষিণী সেলিব্রেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন। সংবাদ প্রতিদিন






মন্তব্য চালু নেই