মেইন ম্যেনু

কারা বিভাগে শিগগিরই ৩১০৭ জন নিয়োগ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জনবল সংকট নিরসনে দেশের কারাগারগুলোতে শিগগিরই ৩ হাজার ১০৭ জনকে নিয়োগের সরকারি আদেশ জারি করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার মাঠে রোববার সকালে ‘কারা সপ্তাহ’ ২০১৭ উদ্বোধনকালে এ কথা জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এক সময় কারাগার শুধু সাজা কার্যকরের স্থান হিসেবে পরিগনিত হতো। সময়ের পরিক্রমায় বাংলাদেশ জেল তার পূর্বতন ধ্যান ধারণা থেকে বেরিয়ে নতুন পথের দিকে ধাবিত হচ্ছে। বাংলাদেশ জেলের সদস্যরা কারাবন্দিদের সংশোধন করে সমাজে পুনর্বাসন করার চেতনা ধারণ করে কারা সপ্তাহ পালন ও উদযাপন করছে। যা কারা বিভাগের নয়; সরকারের সফলতার একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। কারা বিভাগের আধুনিকায়নে কারাবন্দিরা পরিবারের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলার দ্বারও উন্মোচিত হচ্ছে। আধুনিকায়নের ফলে স্পর্শকাতর আসামিদের কারাগার থেকে আদালতে ভিডিও কনফারেন্সিং পদ্ধতিতে বিচার কার্যক্রম চালু করা হচ্ছে। কারা প্রশাসন র‌্যাবের সহযোগিতায় বন্দিদের ডাটাবেজ তৈরি করছে যা আইনশৃঙ্খলা আরো একধাপ এগিয়ে যাচ্ছে।’

কারা কর্মচারীদের প্রশিক্ষণের জন্য কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি রাজশাহী; কারা নিরাপত্তা আরো শক্তিশালী করতে কারা নিরাপত্তা আধুনিকায়ন প্রকল্প মহিলা কারা রক্ষিদের আবাসন সমস্যা নিরসনে মহিলা কারারক্ষি আবাসন প্রকল্প ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় কারাগার সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণ প্রকল্প সরকার একনেকে অনুমোদন দিয়েছে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। অন্যান্য দাবি আজ দরবার প্যারেডে শুনে সমাধানের ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে চৌকষ প্যারেড ও মনোমুগ্ধকর অন্যান্য আয়োজনের প্রশংসা করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সত্যি আমি বিমোহিত। পূর্ণাঙ্গ প্রশিক্ষণ একাডেমি ব্যতীত এ ধরনের প্যারেডের মান বলিষ্ট কারা ব্যবস্থাপনার আন্তরিকতা ও দক্ষতার পরিচায়ক। সবার সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় কারা বিভাগ দিন দিন নজর কাড়ছে এবং ধারা অব্যাহত থাকলে কারা বিভাগ একদিন বিশ্বের দরবারে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হবে।’
কারা বিভাগের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য পুরস্কার ও ক্রেস্ট তুলে দিয়ে ভবিষ্যতে আরো সৃজনশীল কাজ করে কারা বিভাগকে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে নিয়ে যাবে—এমন প্রত্যাশার কথা জানান তিনি।

এরপর সারাদেশের বন্দিদের হাতের তৈরি আসবাবপত্র নিয়ে আয়োজিত কারামেলার উদ্বোধন করে তা পরিদর্শন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ কারামেলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিরও উদ্বোধন করেন তিনি। সবশেষে ‘বন্দিদের সংশোধন; সমাজে পুনর্বাসন’ এ স্লোগানে সবাইকে উজ্জীবিত হয়ে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় অনুষ্ঠানে কারা মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসেবা বিভাগের সচিব মো. ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই