মেইন ম্যেনু

কামারুজ্জামানের ফাঁসি স্থগিত চায় যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনাল-এর বিচার প্রক্রিয়ায় আন্তর্জাতিক মানদন্ড নিয়ে প্রশ্ন থাকায় জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসি স্থগিতের আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের বৈশ্বিক ফৌজদারি অপরাধ দপ্তরের যুদ্ধাপরাধ বিষয়ক অ্যাম্বাসেডর-এট-লার্জ স্টিফেন জে র‌্যাপ -এর বরাত দিয়ে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্ট এই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। এ বিষয়ে স্টেট ডিপার্টমেন্ট এর দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক মুখপাত্র রাইয়ান নর্টন যুক্তরাষ্ট্র সময় সকাল ১০টায় এই প্রতিনিধিকে বলেন, বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রম নিয়মিত দেখভাল করার দায়িত্বে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের বৈশ্বিক ফৌজদারি অপরাধ দপ্তরের যুদ্ধাপরাধ বিষয়ক অ্যাম্বাসেডর-এট-লার্জ স্টিফেন জে র‌্যাপ। অ্যাম্বাসেডর স্টিফেন বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকায় অবস্থান করছেন। সেখান থেকে কনফারেন্স কল-এর মাধ্যমে বাংলাদেশের যুদ্ধাপরাধ ট্রাইবুনালের বিচারিক কার্যক্রম সম্পর্কে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে তিনি এই আহ্বান জানিয়েছেন।
মুখপাত্র রাইয়ান বলেন, এ বিষয়ে স্টেট ডিপার্টমেন্ট আলাদা কোন বিবৃতি দিবে না, কেননা অ্যাম্বাসেডর স্টিফেন-এর বক্তব্যই যুক্তরাষ্ট্র সরকারের বক্তব্য। তিনি বলেন, বাংলাদেশকে মনে রাখতে হবে, যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধাপরাধ বিচার প্রক্রিয়ার পক্ষে। কিন্তু মৃত্যুদন্ডের মতো সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকরের আগে বিচার প্রক্রিয়া সবদিক দিয়ে অবাধ, মুক্ত ও স্বচ্ছ হতে হবে। গতকালের বিবৃতিতে স্টিফেন বলেন, ২০১৪ সালের আগস্টে বাংলাদেশে আমার পঞ্চম সফরের সময় বলেছি- কিছুটা অগ্রগতি হলেও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচার প্রক্রিয়ায় দেশীয় ও আন্তর্জাতিক মানদন্ড রক্ষায় আরও উন্নতি করতে হবে। এ মতাবস্থায় এই মানদন্ড নিশ্চিতের বিষয়টি দৃশ্যমান না হওয়া পর্যন্ত অপরিবর্তনযোগ্য সাজা মৃত্যুদ- কার্যকরের উদ্যোগ গ্রহণ না করাই সবচেয়ে ভালো হবে বলে মন্তব্য করেন স্টিফেন র‌্যাপ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই