মেইন ম্যেনু

কলারোয়ায় আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস উদযাপন

বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির আয়োজনে ও কমিউনিটি লিগ্যাল সার্ভিসেস’র সহযোগিতায় শনিবার সকালে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস ও পক্ষ উদযাপন উপলক্ষ্যে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কলারোয়া বেত্রবতী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে প্রধান শিক্ষক কলারোয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান কামরুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক আজাদুর রহমান খান চৌধুরী পলাশ, কলারোয়া প্রেসক্লাবের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক শিশু ল্যাবরেটরী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক শেখ জুলফিকারুজ্জামান জিল্লু, সাংবাদিক অধ্যাপক কে,এম আনিছুর রহমান, এড. শিহাব মাসউদ সাচ্চু, সাংবাদিক শেখ জিয়া, মনিরুল ইসলাম মনি, ইউপি সদস্য আকবর হোসেন, সহকারী শিক্ষক আব্দুদ দাইয়ান, আনারুল ইসলাম, তজিবুর রহমান, সাইফুল আলম, সমীর কুমার সরকার, দেবাশীষ সরদার, নাছরিন সুলতানা, জাকিয়া পারভীন, আলাইপুর ১ নং ওয়ার্ড কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সদস্য ফরিদা খাতুন, মহিলা আইনজীবী সমিতির প্যারালিগ্যাল ফিরোজ হোসেন, সংস্থার সুফলভোগি রূপসা খাতুন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে নারী নির্যাতনের শিকার হওয়া আলাইপুর গ্রামের শেখ শামিম হোসেনের কন্যা রূপসা খাতুন তার জীবনে ঘটে যাওয়া অভিশপ্ত দিনের বর্ণনা দিতে যেয়ে কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়েন। সভায় বক্তারা আমাদের সমাজে নির্যাতনের শিকার অসহায় নারীদের বিনামূল্যে আইনী সহায়তার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। বর্তমানে উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি এ সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। আলোচকবৃন্দ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির কলারোয়া প্রতিনিধিদের গোটা কলারোয়ায় তাদের কাজের পরিধি বাড়ানোর তাগিদ দেন। সংস্থার সহযোগিতায় কমিউনিটি সার্ভিসেস’র পক্ষ থেকে যে সকল সেবা প্রদান করা হয় সেগুলো হলো-বিবাহ ও তালাক রেজিস্ট্রেশন, পারিবারিক সহিংসতা, দাম্পত্য কলহ, দেনমোহর, ভরণপোষণ, যৌতুক, তালাক, নারী ও শিশু নির্যাতন, বাল্যবিবাহ বন্ধ, যৌন নির্যাতন, উত্যক্তকরণ, সন্তানের অভিভাবকত্ব, নারীর সম্পত্তিতে অধিকার/উত্তরাধিকার, নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুকে উদ্ধার ও নিরাপদ আশ্রয় এবং পরিবারে ফিরিয়ে দেয়া। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সংস্থার সলিসিটর সাকিবুর রহমান।

 

 

কলারোয়া ইসলামী ব্যাংকে পল্লি উন্নয়ন প্রকল্পের কেন্দ্র

লিডার ও ডেপুটি লিডারদের বার্ষিক প্রীতিমিলনী অনুষ্ঠান

শনিবার সকাল ১০টায় ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ কলারোয়া শাখার উদ্যোগে ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও হেড অব জোন আবু নাসের মো: নাজমুল বারীর সভাপতিত্বে শাখা ভবনে পল্লি উন্নয়ন প্রকল্পের কেন্দ্র লিডার ও ডেপুটি কেন্দ্র লিডারদের বার্ষিক প্রীতিমিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংক ভবনে কেন্দ্র লিডার ও ডেপুটি কেন্দ্র লিডারদের ফুলেল শুভেচ্ছার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক ও ব্যাংকের এভিপি মোঃ আবুল হোসেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আবুল কাশেম, থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, পল্লি দারিদ্র বিমোচনে ও গ্রামীন অর্থনীতির উন্নয়নে ইসলামী ব্যাংক পল্লি উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে যে কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে তা প্রশংসার দাবীদার। অর্থনৈতিক প্রতিকুলতা সত্বেও তারা দেশের অর্থনীতির ভিতকে মজবুত করতে সহায়ক ভূমিকা রেখে যাচ্ছে। প্রধান অতিথি Pic-22বলেন, আমি তাদের সেবা ও সাফল্যে মুগ্ধ। সভাপতি তার সমাপনী বক্তব্যে বলেন, ইসলামী ব্যাংক শুধু একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানই নয়, এটা সর্ব শ্রেণীর গণমানুষের একটি সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। কল্যাণমূখী কর্মকান্ডের মাধ্যমে শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলেও এর সুখ্যাতি ছড়িয়ে পড়েছে। তাই ইসলামী ব্যাংক আজ বিশ্বব্যাপী একটি মডেলে পরিনত হয়েছে। তিনি এ ব্যাংকের সকল সদস্য, শুভানুধ্যায়ীদের অত্র অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণের জন্য ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী সদস্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বেগম মেহেরুন্নেছা, তাহেরুন্নেছা, তানজিলা বেগম, শামীমা আফরোজা, চুমকি রায়, সাধনা, নুরুন্নাহার প্রমুখ। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের সিনিয়র প্রিন্সিপ্যাল অফিসার ও আরডিএস জোনাল অফিসার মোঃ আনিছুর রহমান, প্রিন্সিপ্যাল অফিসার মোঃ হাবিবুর রহমান, মুহাম্মদ জহুরুল ইসলাম, মাসুদ বিল্যাহ , সিনিয়র অফিসার মোঃ আলমগীর হোসেন, নূরুল ইসলাম, অফিসার ও প্রকল্প কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান, অফিসার জি,এম নূর হোসেন, মোস্তফা খালিদ হুসাইন, হারুনুর রশীদ, নুরুজ্জামান, মফিজুর রহমান, ব্যাংকের এপিও মোঃ মনিরুল ইসলাম, মোঃ আব্দুল হামিদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে অতিথিবৃন্দ, সাংবাদিক ও অংশগ্রহণকারী সদস্যদের ক্রেষ্ট ও উপহার তুলে দেয়া হয়।

কলারোয়া সীমান্তে রসুন, মদ ও ট্যাবলেট উদ্ধার

কলারোয়া সীমান্তে বিজিবি সদস্যরা পৃথক অভিযান চালিয়ে রসুন এবং ভারতীয় মদ ও ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে। তবে উদ্ধারের কোনো ঘটনায় বিজিবি সদস্যরা কাউকে আটক করতে পারেনি। মাদরা বিজিবি’র কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার শহিদুল ইসলাম শনিবার সাংবাদিকদের জানান, তাঁর নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা সীমান্তবর্তী বোয়ালিয়া গ্রাম থেকে শুক্রবার রাতে ১শ’ কেজি রসুন উদ্ধার করেন। উদ্ধারকৃত রসুন ভারতে পাচার করার জন্য নেওয়া হচ্ছিলো বলে বিজিবি সূত্র জানায়। এর আনুমানিক মূল্য ১০ হাজার টাকা। অপরদিকে চান্দুড়িয়া বিওপি’র নায়েব সুবেদার আব্দুল মান্নান সাংবাদিকদের জানান, তাঁর নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা শনিবার বিকেলে উপজেলার সীমান্তবর্তী গোয়ালপাড়া গ্রাম থেকে ভারতীয় ২০ বোতল মদ ও ৫০০ পিস ‘ডাবল হর্সপাওয়ার’ ট্যাবলেট উদ্ধার করেন। এগুলোর আনুমানিক মূল্য ৬৫ হাজার টাকা।

কলারোয়ায় জয়নগরে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কাউন্সিল সভাপতি আক্তারুল, সম্পাদক জয়নাল
কলারোয়া উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের ৫ নং মানিকনগর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কাউন্সিল উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে মানিকনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে সর্বমোট ১০২ জন কাউন্সিলর/ভোটারের মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ৮১ জন। সভাপতি পদে আক্তারুল ইসলাম ৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী সাংবাদিক আব্দুর রহমান পান ৩৭ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে জয়নাল গাজি ৪৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী রবিউল ইসলাম পান ৩৮ ভোট। নির্বাচন পরিচালনা করেন জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মাস্টার আজিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক তাপস কুমার পাল, নির্বাচন প্র¯‘িত কমিটির আহবায়ক ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ম্যানিয়েল মন্ডল, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা শফিকুর রহমান মালী, তপন কুমার সাহা, আ’লীগ নেতা অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোতালেব খাঁ প্রমুখ।

কলারোয়ায় ডাকাতি মামলার আসামিসহ দু’জন আটক

কলারোয়া থানা পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে এক ডাকাতসহ দু’জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো- উপজেলার দিগং গ্রামের মোসলেম মোড়লের পুত্র ডাকাতি মামলার আসামি জিয়াউর রহমান (৩৭) ও একই উপজেলার সীমান্তবর্তী বড়ালী গ্রামের হবিবার রহমান বদ্দীর ছেলে মাদক ব্যবসায়ী বাবলু বদ্দী (৪০)। কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম সাংবাদিকদের জানান, তিনি শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন জি আর ৩২৯/১০ নং ডাকাতি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি জিয়াউর রহমান বাড়িতে অবস্থান করছে। পরে থানার এস আই হিমেল হোসেন সঙ্গীয় পুলিশ সদস্য নিয়ে তাকে তার বাড়ি থেকে আটক করে। অপরদিকে একই রাতে থানার ওসি (তদন্ত) শেখ শফিকুর রহমান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী বাবলু দ্দীকে আটক করে ৩৪ ধারায় পুলিশের আইনে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কলারোয়া মুরারীকাটি সরকারী প্রাথ: বিদ্যালয়ে বিদায় অনুষ্ঠান

কলারোয়ায় ১২৩ মুরারীকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত মাদ্রাসা শিক্ষক প্রবীন সাংবাদিক আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কলারোয়া মাধ্যমিক মিক্ষক সমিতির সভাপতি মুরারীকাচি ইউনাইটেড হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আমানুল্লাহ আমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হাইস্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম, মাওলানা মোস্তফা আলী আহম্মেদ, আবুল বাসার, স্কুলের শিক্ষক পার্বকী পাল, জাহানারা খাতুন, রুনুরান্যপাল। অনুষ্ঠান শেষে বিদায়ী ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে কলম,হার্ডবোর্ড ও স্কেল সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক আহসানউল্লাহ।






মন্তব্য চালু নেই