মেইন ম্যেনু

কপাল পুড়তে পারে ব্যর্থ ওয়াকারের

পাকিস্তানের গ্রেট ব্যাটসম্যানদের মধ্যে জহির আব্বাস অন্যতম। ক্রিকেটে ‘এশিয়ার ব্র্যাডম্যান’ হিসেবে পরিচিত তিনি। জাতীয় দলের হয়ে ৭৪টি টেস্ট খেলেছেন। নামের পাশে যোগ করেছেন ৫০৫২ রান। যার গড় ৪৪.৭৯। আর ৬২টি ওয়ানডে খেলে ৪৭.৬২ গড়ে করেছেন ২৫৭২ রান।

পাকিস্তানের জাতীয় দলের পরামর্শকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন আব্বাস। কিন্তু বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে দলের বাজে পারফরম্যান্সের কারণে সেই পদ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন তিনি। রক্তে ক্রিকেট মিশে আছে বলেই হয়তো পাকিস্তান দলের খোঁজ-খবর রাখতে ভুল করেন না আব্বাস।

বাংলাদেশের কাছে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে ধবলধোলাই হওয়ার পর আব্বাসের মনটা খুবই খারাপ। এই অসহায় আত্মসমর্পণ মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে তার। ক্ষোভে ফুঁসছেন তিনি। দলের এমন বাজে পারফরম্যান্সের জন্য কোচ ওয়াকার ইউনুসকে দায়ী করছেন আব্বাস।

এমনকি ওয়াকারকে বহিষ্কারের দাবি তুলেছেন তিনি। এতে কপাল পুড়তে পারে পাকিস্তানের কোচের। টেস্টে দল খারাপ করলে চাকরিটা হারাতেও পারেন ওয়াকার।

এ বিষয়ে জহির আব্বাস বলেন, ‘ওয়াকার ক্রিকেটার হিসেবে গ্রেট ছিল, এতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু একজন কোচ হিসেবে সম্পূর্ণ ব্যর্থ সে। কোচের পদ থেকে তাকে বহিষ্কার করা উচিত।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি আমার জীবনে কখনো পাকিস্তান ক্রিকেট দলের এমন বাজে পারফরম্যান্স দেখিনি। হার তো খেলারই অংশ। তবে বাংলাদেশের কাছে যেভাবে ক্ষত-বিক্ষত হলো পাকিস্তান, এমনটা আমাদের ক্রিকেট ইতিহাসেই প্রথম।’

টাইগারদের কাছে বাংলাওয়াশকে পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য ‘দুঃসংবাদ’ উল্লেখ করে আব্বাস বলেন, ‘বাংলাদেশের কাছে পরাজয়ের জন্য কোনো অজুহাত খোঁজা যাবে না। এটা পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য দুঃসংবাদ। আমি কল্পনাও করতে পারিনি যে, এতটা খারাপ খেলবে আমাদের খেলোয়াড়রা।’






মন্তব্য চালু নেই