মেইন ম্যেনু

ওয়ানডে থেকে অবসর নেবেন আফ্রিদি!

টি-টোয়েন্টির প্রতি আরও বেশি মনোযোগ দিতে ওয়ানডে ছাড়ার চিন্তা-ভাবনা করছেন অলরাউন্ডার শাহীদ আফ্রিদি। ক’দিন আগেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) টি-টোয়েন্টি নেতৃত্ব তুলে দেয় আফ্রিদির কাঁধে। মারকুটে এই ব্যাটসম্যান পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দেবেন ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। যেটি অনুষ্ঠিত হবে ভারতে। এখনই ওই বিশ্বকাপকে পাখির চোখ করে ফেলেছেন আফ্রিদি। তার ভাষায়, ‘পিসিবি আমাকে ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিয়োগ দিয়েছে। আমি চাই পুরোপুরি সেদিকেই ফোকাস করতে, যাতে শক্ত একটা টি-টোয়েন্টি দল গড়তে পারি। যে দলটি আবার পাকিস্তানে শিরোপা ফিরিয়ে আনতে পারবে।’ আফ্রিদি ২০১০ সালে ইংল্যান্ডে সিরিজ চলাকালে অবসর নিয়ে বসেন টেস্ট ক্রিকেট থেকে। এদিন টেস্ট ক্রিকেট ছাড়ার কারণ ব্যাখা করতে গিয়ে আফ্রিদি বলেন, ‘আমি টেস্ট ছেড়েছি কারণ এটা আমি উপভোগ করছিলাম না। আমার মনে হয়েছে, একজন খেলোয়াড় হিসেবে দলের জন্য যখেষ্ট অবদান রাখতে পারছি না। আমি সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ক্রিকেটটা উপভোগ করি। তবে আমি বিশ্বকাপের পর পুনরায় গুরত্ব বিবেচনায় ওয়ানডে নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করতে পারি।’ ৩৪ বছর বয়সী আফ্রিদি ওয়ানডে খেলেছেন ৩৮১টি। ২৩.৪০ গড়ে রান করেছেন ৭৬৫২। ৩৬ ফিফটির পাশাপাশি ছয় সেঞ্চুরির মালিক আফ্রিদি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি টেস্ট-ওয়ানডে থেকে পুরোপুরি আলাদা। এখানে আপনার সেরাটা দিতে হয়। মানুষের কাছেও খেলাটি তুমুল জনপ্রিয়।’ তবে আফ্রিদির ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে খেলার পরই ওয়ানডেকে বিদায় বলবেন বুমবুম আফ্রিদি। এরপর তিনি হয়তো মনোনিবেশ করবেন ব্যবসা, দাতব্য প্রকল্প এবং বিদেশী টি-টোয়েন্টি লিগগুলো খেলতে।






মন্তব্য চালু নেই