মেইন ম্যেনু

এ কেমন প্রেমিক-যুগল!

সন্তান প্রসব করাতে প্রেমিকাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলেন এক ব্যক্তি। কিছুক্ষণের মধ্যে তাকে অস্ত্রোপচার করা হবে। চিকিৎসকরা সেই প্রস্তুতিও নিচ্ছেন। কিন্তু এমন অবস্থায় হাসপাতালের বেডে ওই প্রেমিকযুগল মেতে ওঠেন…।

বিষয়টি টের পান হাসপাতালের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মী। এরপর হাসপাতালের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে অবহিত করেন তিনি। প্রেমিকযুগলকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন কর্মকর্তারা। ঘটনাটি ইংল্যান্ডের ব্রিস্টল শহরের সেন্ট মাইকেল হাসপাতালে।

ওই হাসপাতালেন নীতিতে রয়েছে, কোনো দম্পতি বা যুগল যৌনসঙ্গম করলে তাদের বাধা দেওয়ার কোনো অধিকার নেই কর্মকর্তাদের। তাই এ কুকর্মের জন্য তাদের কোনো সাজাও দেওয়া হয়নি।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, হাসপাতালে আসা অন্য রোগীরাও বিষয়টি ঠিক পেয়েছিল। হাসপাতালে তাদের এ কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজ দেখে অনেকে হতাশা প্রকাশ করেন। এটা দেখার পরও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের কাজ চালিয়ে যাওয়ার সময় দেয়।

চিকিৎসকরা জানান, এ অবস্থায় যৌনমিলন ক্ষতিকর নয়। তবে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ ও পানি ভাঙা থেকে রক্ষা করতে এ সময় এ রকম কাজে নিজেদের বিরত রাখাই ভালো।

হাসপাতালের মুখপাত্র জানান, ‘হাসপাতালকর্মীদের কাজ হলো কোনো রোগী যেন অসুবিধায় না পড়েন, সেটা নিশ্চিত করা। সেটাই তিনি সুচারু ও গোপনীয়ভাবে সম্পন্ন করেছেন। তবে এ বিষয়ে অন্য রোগীর কাছ থেকে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।’

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই