মেইন ম্যেনু

এবার কলঙ্কিত ভারতীয় আইপিএল, অপকর্মের কারণে আটক চেয়ারম্যান

ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলকে কলঙ্কিত করেছেন সাবেক চেয়ারম্যান চিরায়ু আমিন। অপকর্মের অভিযোগে ভদোদরার একটি বাগান বাড়িতে হানা দিয়ে আইপিএলের এই চেয়ারম্যানকে আটক করেছে গুজরাত পুলিশ।

ভারতীয় পত্রিকার খবর, শুধু চিরায়ু আমিন নয়, হাই-প্রোফাইল প্রি-ম্যারেজ লিকার পার্টিতে আরও ২৬০ জনকে আটক করে পুলিশ। সেখান থেকে উদ্ধার হয়েছে ২৯৩ বিদেশি নেশা জাতিও পানি বোতল। যার বাজারমূল্য প্রায় ১ লক্ষ ২৮ হাজার ৯৫০ টাকা।

গুজরাত সরকার অর্ডিন্যান্স এনে মদ সংক্রান্ত আইন আরও কঠোর করেছে। তারপর এই প্রথম লিকার পার্টিতে অভিযান চালাল পুলিশ। ভদোদরার পুলিশ সুপার সৌরভ তোলুম্বিয়া বলেছেন, অম্পদ গ্রামের একটি বাগান বাড়িতে একটি লিকার পার্টিতে অভিযান চালিয়ে ছিলাম আমরা।

সেই পার্টির আয়োজক ছিলেন ওই বাগান বাড়ির মালিক জিতেন্দ্র শাহ ও তাঁর পুত্র অভয়কে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে দুটি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যাঁরা সেই পার্টিতে হাজির ছিলেন, তাঁদের বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের হয়েছে।

গুজরাতে নেশা পানি নিষিদ্ধ হওয়ার পর এই ধরনের পার্টি থেকে ধরা পড়লে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং পাঁচ লক্ষ টাকা জরিমানা হতে পারে।

প্রাক্তন আইপিএল চেয়ারম্যান ছাড়াও অপর এক শিল্পপতি রাকেশ অগ্রবালকেও আটক করা হয় ওই পার্টি থেকে। তাঁদের প্রত্যেকের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

পাশাপাশি, নোট বাতিল কাণ্ডের পর অনেক নতুন নোটও আটক করা হয়েছে এই পাটিতে। সেখানেও নাম জড়িয়েছে আমিনের।






মন্তব্য চালু নেই