মেইন ম্যেনু

এই মাছের এত দাম! যে কেউ শুনলে ভিরমি খাবেন

এলাকারই এক মৎস্যজীবী শেখ জাকির হোসেনের জালে মাছটি ধরা পড়েছিল। কিন্তু সেই মাছটির যা দাম উঠল, তা জানলে চোখ কপালে উঠবে সকলের।

দিঘার সমুদ্রতটে আবার চাঞ্চল্য। জালে পড়েছে মহামৎস্য। সমুদ্রস্নানের মজা, জিভা জল আনা স্ন্যাকস, নজর আটকে যাওয়া সুন্দরী— সব কিছু ফেলে পাবলিক হই হই করে ছুটল মহামাছ দেখতে।

না, কোনও কিংবদন্তি থেকে উঠে আসা মহামীন নয়। এই মাছ নিতান্তই এক তেলিয়া ভোলা। ওজন ৩০ কেজি।

দিঘায় স্থানীয়দের কাছে এই মাছটি ‘খচ্চর মাছ’ নামেই পরিচিত। এই মাছটির দাম সাধারণ মাছের থেকে অনেকটাই বেশি। কারণ এই মাছের পটকা থেকে তৈরি হয় ক্যাপসুলের খোল। এই মাছের চাহিদা শুধু এদেশেই নয়, বিদেশের বাজারেও বিপুল।

শুক্রবার বিকেলে তেলিয়া ভোলাটিকে দিঘার আড়তে নিয়ে আসা হয়। খবর ছড়িয়ে পড়তেই মাছের আড়তে ক্রেতাদের ভিড় জমে যায়। ১০ হাজার টাকা প্রতি কেজি হিসেবে মাছটি নিলাম ওঠে। স্থানীয় সূত্রের খবর, এলাকারই এক মৎস্যজীবী শেখ জাকির হোসেনের জালে মাছটি ধরা পড়েছিল। এর পরেই সেটি বিক্রির জন্য তিনি দিঘার মাছের আড়তে নিয়ে আসেন। গোটা মাছটির দাম উঠেছে সাড়ে তিন লক্ষ টাকা।

২২ ফেব্রুয়ারি, বুধবার দিঘার মাছ-আড়তে এই ধরনের একটি শংকর প্রজাতির তেলিয়া ভোলা ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছিল। তার দু’দিনের মাথায় আবার একটি বহুমূল্যের মাছ আড়তে এল।-এবেলা






মন্তব্য চালু নেই