মেইন ম্যেনু

ইসলামী আন্দোলন নেতার মৃত্যুতে দোয়া ও শোক

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরের ইপিজেড থানা শাখার সাবেক সহ-প্রচার ও প্রকাশানা সম্পাদক ও বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি ৩৯নং ওয়ার্ড শাখার সাবেক অর্থ সম্পাদক জনাব আতাউর রহমান (৩৬) গত ১৭ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) ইন্তিকাল করেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলায়হি রাজিউন। জনাব আতাউর রহমান চরমোনাইয়ের পীর সাহেবের একজন একনিষ্ঠ মুরীদ ও ভক্ত। গত বৃহস্পতিবার তরীকার নিয়ম অনুযায়ী মাসিক ইজতিমা ও শবগুজারি শেষে রাতব্যাপী ৩১ অক্টোবরের মহাসমাবেশের পোস্টারিং করেন তিনি এবং শেষ রাতে তাহাজ্জুদ ও জিকির করতে করতে ফজরের নামাযের একটু আগে ইন্তিকাল করেন জনাব আতাউর রহমান।

মরহুমের গ্রামের বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের বদা থানার লক্ষ্মীর হাটের দেবীপুর গ্রামে। তিনি স্ত্রী, দু’ছেলে মেয়ে, আত্মীয়-স্বজন, দলের সহকর্মী ও অসংখ্য পীর ভাই রেখে গেছেন।
জনাব আতাউর রহমানের ইন্তিকালের পীর সাহেব চরমোনাইয়ের ভক্ত-মুরীদ ও পীর ভাইদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। দলের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কুরআন খতম, ফাতিহা, কাফন এবং জানাযা শেষে অ্যাম্বুলেন্সে তাঁর মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয়।

এদিকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে ১৭ অক্টোবর (শুক্রবার) সকাল ১১ ঘটিকায় চট্টগ্রাম দেওয়ানহাটস্থ নগর কার্যালয়ে এক দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে কেন্দ্রীয় কৃষি ও শ্রমবিষয়ক সম্পাদক, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি আলহাজ জান্নাতুল ইসলাম, সেক্রেটারি আলহাজ মুহাম্মদ ইকবাল, সহ-সভাপতি আবুল কাশেম মাতুব্বর, আলহাজ নুরুল ইসলাম প্রমুখ তাঁর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন, শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে দেশবাসীর প্রতি তাঁর রুহের মাগফিরাতের দুআ কামনা করেছেন।

সভায় ৩১ অক্টোবরের মহাসমাবেশের প্রচারণায় আগামী ২৫-২৭ অক্টোবর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রতিটি থানায়, ওয়ার্ড/ইউনিয়নে গণমিছিল এবং ২৮ অক্টোবর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে চট্টগ্রাম মহানগরীর প্রধান প্রধান সড়কে মোটর সাইকেল, ট্রাক-পিকাফ র‌্যালির সফল করার জন্য সর্বস্তরের তৌহীদি জনতার প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানানো হয়।






মন্তব্য চালু নেই