মেইন ম্যেনু

আ.লীগের মদদে বিশিষ্টজনরা অবাঞ্ছিত

আওয়ামী লীগের মদদে শহীদ মিনারে দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে অধ্যাপক ড. পিয়াস করিম স্মরণে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত নাগরিক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের লাশ শহীদ মিনারে নিতে দেয়া হবে না। তাদের শহীদ মিনারে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হচ্ছে। যারা এটা করছে তারা কারা। আওয়ামী লীগের মদদে এসব হচ্ছে। দলটি বিভক্তির রাজনীতি করছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার নীল নকশার মাধ্যমে দেশ ধ্বংস করতে চায়। কিন্তু জনগণ তাদের ক্ষমা করবে না। এদেশের মানুষের ওপর আস্থা আছে আমাদের। তারা ভুল সিদ্ধান্ত  নেবে না।’

তিনি বলেন, ‘অতীতেও আন্দোলনের মাধ্যমে এদেশের মানুষ স্বৈরাচার ও দখলদারদের বিতাড়িত করেছে। এবারও আন্দোলনের মাধ্যমে এ অবৈধ দখলদার সরকারকে বিতাড়িত করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবে।’

ফখরুল বলেন, ‘ড. পিয়াস করিম মানুষের অধিকার, স্বাধীনতার পক্ষে কথা বলার সাহসী সৈনিক ছিলেন। তিনি সত্যিকার অর্থে দেশপ্রেমিক ছিলেন। দেশের মানুষের মুক্তির জন্য কাজ করে গেছেন। দেশ ও মাটির টানে আমেরিকা থেকে দেশে চলে এসেছিলেন তিনি। আমরা একজন দেশপ্রেমিককে হারালাম।’

তিনি আরো বলেন,  ‘ড. পিয়াস করিমের জানাজায় লাখো মানুষের ঢল প্রমাণ করে তিনি জনপ্রিয় ছিলেন।’

পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. ওসমান ফারুক, শওকত মাহমুদ, ডা. জেডএম জাহিদ, মেজর (অব.) মুহাম্মাদ ইব্রাহিম বীরপ্রতিক, বিএনপির প্রচার সম্পাদক জয়নুল আবেদিন ফারুক, ডা. জাফরুল্লাহ, সাংবাদিক শফিক রেহমান, ফরহাদ মাযহার প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই