মেইন ম্যেনু

আশিয়ান সিটির দক্ষিণখানের প্রকল্প অবৈধ

রাজধানীর উত্তরার দক্ষিণখান মৌজায় অবস্থিত আশিয়ান সিটির আবাসিক প্রকল্পকে অবৈধ ঘোষণা করে দেয়া হাইকোর্টের রায় বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

সোমবার প্রধান বিচারপতি মো.মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের ৫ সদস্যের বেঞ্চ আদেশ দেননি।

আশিয়ান সিটির পক্ষে আদালতে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক, রোকনউদ্দিন মাহমুদ ও আজমালুল হোসেন কিউসি।

রিট আবেদনকারীদের পক্ষে ছিলেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল মাহমুদুল ইসলাম।

পরে মাহমুদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, হাইকোর্টের রায় স্থগিতে আশিয়ান সিটি আবেদন করেছিল। আপিল বিভাগ এ বিষয়ে কোনো আদেশ না দেয়ায় প্রকল্পটি অবৈধই থাকলো।

এর আগে গত ২০ জানুয়ারি হাইকোর্টের দেয়া রায় স্থগিতে আশিয়ান সিটির করা আবেদন স্থগিত করেনি আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

গত ১৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার যথাযথভাবে আইন অনুসরণ না করে অনুমোদন দেয়ায় বিচারপতি সৈয়দ এ বি মাহমুদুল হক, বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি এবিএম আলতাফ হোসেনের বৃহত্তর বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে আশিয়ান সিটি আবাসিক প্রকল্পকে অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেন।

২০১২ সালের ২২ ডিসেম্বর রাজধানীর উত্তরার দক্ষিণখান মৌজায় অবস্থিত আশিয়ান সিটি আবাসিক প্রকল্পকে দেয়া রাজউকের অনুমোদন এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের দেয়া আশিয়ান সিটির অবস্থানগত ছাড়পত্রের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা), আইন ও শালিস কেন্দ্র, ৮টি মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করে।

এ আবেদনে বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ গত বছরের ২ জানুয়ারি এক আদেশে আশিয়ান সিটি আবাসিক প্রকল্পে মাটি ভরাট, প্লট বিক্রি ও যেকোনো ধরনের বিজ্ঞাপন প্রচারসহ সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।






মন্তব্য চালু নেই