মেইন ম্যেনু

আল্টিমেটামের সময় বাড়িয়ে কার্যালয়ে তালা

এ্যানী-টুকুর অপসারণসহ বেশ কিছু দাবিতে ছাত্রদলের পদবঞ্চিতরা মঙ্গলবার বিএনপিকে দুই দিনের সময় বেঁধে দিয়েছিলেন। বুধবার এক জরুরি মিটিংয়ে এই সময়সীমা দুই দিন থেকে সাত দিন বাড়িয়ে দিয়েছেন তারা। তবে গতকালের মতো বুধবারও বিক্ষোভ থেকে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা মেরে দেন পদবঞ্চিতরা।

গত ১৪ অক্টোবর রাজিব আহসানকে সভাপতি ও আকরামুল হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রদলের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। ওই কমিটি প্রত্যাখ্যান করে এরপর থেকেই বিক্ষোভ করে আসছেন পদবঞ্চিতরা। তাদের দাবিগুলো হলো- বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সহ-ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুকে পদ থেকে অপসারণ, ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটি বাতিল ও ছাত্রদলের যে তিনজনকে বহিষ্কার করা হয়েছে তা প্রত্যাহার। এসব দাবি আদায়েই বিএনপিকে সময় বেঁধে দিয়েছেন তারা।

বুধবার বিকেল ৪টায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ থেকে এ আল্টিমেটা দেয়া হয়। এরআগে নয়াপল্টন এলাকায় বিক্ষোভ মিছিলও করেন পদবঞ্চিতরা। দুই শতাধিক নেতাকর্মী এতে অংশ নেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে বক্তরা বলেন, ‘বর্তমান ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটি সরকারের নীলনকশা বাস্তবায়নের জন্য করা হয়েছে। সরকার যেভাবে বলেছে এ্যানী ও টুকু সেইভাবেই ছাত্রদলের কমিটি দিয়েছেন।’

বুধবার পদবঞ্চিতদের এ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন- ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি ফেরদৌস আহমেদ মুন্না, আবু সাঈদ, রাকিবুল ইসলাম রয়েল, তরুন দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম টিটু, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, রিয়াজ মাহমুদ, হাবিবুর রহমান সুমন, রফিকুল ইসলাম, মোশাররফ হোসেন মুশু প্রমুখ।

এছাড়া ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটির সহ-সভাপতি সাদিউল কবির নিরবও পদবঞ্চিত নেতাদের বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন।






মন্তব্য চালু নেই