মেইন ম্যেনু

আফ্রিদির শেষ ইচ্ছা ছয় ছক্কা!

একদিন আগেই জানিয়েছেন ২০১৫ বিশ্বকাপের পরই ওয়ানডে ক্রিকেটকে গুডবাই জানাবেন আফ্রিদি। বিদায় বেলায় শেষ ইচ্ছা কী সেটাও জানালেন পাকিস্তানের এই ড্যাশিং অলরাউন্ডার। শেষ বেলায় দেশকে একটি বিশ্বকাপ উপহার দেওয়াই তার লক্ষ্য।

কিন্তু বুম বুম আফ্রিদি বলে তার যে নাম ছড়িয়ে পড়েছে, দর্শকরা কী শেষ বেলায়ও আফ্রিদির এই রূপ দেখতে পাবে না? জবাব দিয়েছেন তিনি নিজেই। মজার করেই বললেন, ‘শেষ টুর্নামেন্টে যদি এক ওভারে ৬টি ছক্কা হাঁকাতে পারি,তাহলে সেটা হবে স্বপ্নের মত এক বিদায়।’

ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও টি২০ খেলে যাবেন। তার লক্ষ্য ২০১৬ বিশ্বকাপে নিজের নেতৃত্বে শিরোপা জয় করা। ৩৮৯টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলা এই পাকিস্তানি অলরাউন্ডার বলেন, ‘আমি সম্মানের সঙ্গেই ওয়ানডে থেকে অবসর নিতে চাই, যদিও আমার সমর্থকরা চায় আমি আরও খেলি।’

আফ্রিদি জানিয়েছেন, আসন্ন বিশ্বকাপে তার লক্ষ্য হল পাকিস্তানকে চ্যাম্পিয়ন করা। আর স্বপ্নের বিদায় হবে যদি তিনি এক ওভারে ৬টা ছক্কা হাঁকাতে পারেন।

বিদায় বলে দেওয়ার না কি এটাই তার কাছে সঠিক সময়। এমনকি তিনিই না কি প্রথম পাকিস্তানি ক্রিকেটার, যিনি সম্মানের সঙ্গে, সঠিক সময়ে অবসর ঘোষণা করতে পারছেন। তিনি বলেন, ‘আমিই প্রথম পাকিস্তানি ক্রিকেটার যিনি, সম্মানের সঙ্গে এবং সঠিক সময়ে অবসর ঘোষণা করতে পারছি।’

afridi আফ্রিদির শেষ ইচ্ছা ছয় ছক্কা!১৯৯৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় আফ্রিদির। তখন থেকে আফ্রিদি মানেই ঝড়, আফ্রিদি মানেই ওভার বাউন্ডারি, আর বোলারদের কাছে এক বিভীষিকার নাম। ১৮ বছর ধরে এই একটা নাম পাকিস্তান ক্রিকেটকে একটা আলদা জায়গায় নিয়ে গিয়েছে। ৩৮৯ টি ওয়ানডে খেলে আফ্রিদি রান করেছেন ৭৮৭০, গড় ২৩.৪৯। হাত ঘুরিয়ে তুলে নিয়েছেন ৩৯১টি উইকেট।

এছাড়া আফ্রিদিই একমাত্র ক্রিকেটার, তিন ধরনের ক্রিকেট মিলে যার ৪০০’র অধিক ছক্কা মারার রেকর্ড রয়েছে। ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ৩৪২টি ছক্কা মেরেছেন আফ্রিদি। এছাড়া টেস্টে ৪৯ এবং টি২০ ক্রিকেটে তার ছক্কা সংখ্যা ৫২টি।

ওয়ানডেতে ৪০০  উইকেট এবং ৮ হাজার রানের একেবারে কাছাকাছি আফ্রিদি। বিশ্বকাপেই এই মাইলফলকে পৌঁছাতে চান তিনি। আফ্রিদি বলেন, ‘বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্য তো থাকবেই! সঙ্গে আমি চাই ওয়ানডে ক্রিকেটের অসাধারণ এই দুটি মাইল ফলকেও পৌঁছাতে।’

তবে তাকে বোঝাতে এসব পরিসংখ্যান নেহাতই তুচ্ছ। কারণ, আফ্রিদি হলেন এমন একজন ক্রিকেটার যিনি ব্যাট হাতে নামলেই অসম্ভবকে এক লহমায় সম্ভব করে ছাড়েন। ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বকালের সেরা ম্যাচ উইনারদের মধ্যে ‘বুম বুম’ আফ্রিদির নাম উপরের দিকে থাকবে।






মন্তব্য চালু নেই