মেইন ম্যেনু

আপনি জানেন, এখানে ছাগলও গাছে ওঠে! দেখুন ভিডিও…

কথায় আছে গল্পের গরু গাছে ওঠে। কিন্তু ছাগলকে গাছে উঠতে দেখেছেন কখনও? এটাও না হয় মানা গেল, তাড়া খেয়ে একটা-দুটো ছাগল প্রাণ বাঁচাতে গাছে উঠে পড়ে। কিন্তু তাই বলে এতগুলো ছাগল প্রতিদিন এইভাবে গাছে উঠবে সেটা কীভাবে বিশ্বাস করবেন? তবে এই দৃশ্য যদি আপনি নিজের চোখে দেখতে চান, তবে অবশ্যই মরক্কো থেকে একবার ঘুরে আসুন।

মরক্কোয় গেলে আপনি শুধু ছাগলের গাছে ওঠাই নয়, দেখতে পাবেন কেমন করে ছাগল এক ডাল থেকে অন্য ডালে ঘুরে বেড়াচ্ছে, ফল পেড়ে খাচ্ছে। আসলে মরক্কোয় প্রচুর পরিমাণে আরগান নামে এক ধরনের গাছ রয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মরক্কো-র সোয়াস ভ্যালিতে মূলত এই গাছ দেখা যায়। এই গাছে হলুদ রংয়ের এক ধরনের রসালো ফল হয়। সেই ফলের লোভেই ছাগল গাছে ওঠে। জানা গিয়েছে, এই ফল থেকে একটি সুগন্ধী তেল তৈরি হয়, যা ত্বক পরিচর্যার কাজে লাগে। এই তেল বিদেশে রফতানিও করা হয়। আর এই তেল তৈরিতে ছাগলের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। বীজ সমেত ওই পাকা ফল খেয়ে ফেলে ছাগল। কিন্তু ফলের বীজগুলি হজম না হওয়ায় তা ছাগলের মলের সঙ্গে বেরিয়ে আসে। স্থানীয় বাসিন্দারা সেই বীজগুলি শুকিয়ে তেল বের করে।

ছাগলদের এই কীর্তিকলাপ নতুন কিছু নয়। সম্প্রতি বুরাক সেনবাক নামে এক চিত্রগ্রাহক, ছাগলের গাছে ওঠার এই ছবিটি তোলেন। এর আগে মাউরুজিও পুন্টারি নামে এক ইতালিয়ান চিত্রগ্রাহকও ইসাউইরাতে এইরকমই একটি ছবি তোলেন। সেই ছবিটি ছড়িয়ে পড়ার পরে রীতিমতো অবাক হয়ে গিয়েছে বিশ্ববাসী। জানা গিয়েছে, মরক্কো ছাড়া আলজেরিয়াতেও এই ধরনের গাছ দেখতে পাওয়া যায়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন






মন্তব্য চালু নেই