মেইন ম্যেনু

আপনি কি অবসরে যাওয়ার কথা ভাবছেন?

বয়স হলে একটা সময় আবসরে যেতেই হবে। কিন্তু আপনি কি বয়সের আগেই অবসরে যাওয়ার কথা ভাবছেন? অবসরের আগে কী কী দেখে নেওয়া দরকার?

অনেকেই নিজেদের জিজ্ঞেস করেন, ‘কখন আমি অবসর নেব?’ আবার তারাই মনে মনে ভাবেন, ‘আমি কি অবসরের জন্য প্রস্তুত?’৷ আসলে অবসর নেওয়ার পর অর্থনৈতিকভাবে, মানসিকভাবে কেউই আর আগের মতো থাকেন না৷ তাই বিড়ম্বনা একটা ঘটেই৷

তাই ইচ্ছাকৃত অবসর নেওয়ার আগে কতগুলো জিনিস আগে থেকে ভেবে নেওয়া দরকার৷

প্রয়োজন পরিকল্পনা

আপনি কি জানেন সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য আপনার মাসে ঠিক কত টাকা প্রয়োজন? এই উত্তরটা অবসর নেওয়ার আগে জেনে নেওয়া প্রয়োজন৷ তারপরে দেখে নেওয়া প্রয়োজন এই অর্থের জোগান আপনার রয়েছে কিনা৷

চাপে থাকলে অবসর নয়

আপনার যদি প্রতি মাসে ইএমআই দেওয়ার বা অন্যান্য অর্থনৈতিক চাপ থাকে এবং সেই চাপ আপনি এখন কোনও রকমে সামলে নিচ্ছেন, তাহলে অবসর নেওয়ার সময় এটা নয়৷ তাই অনেক আগে থেকেই সেভিংস স্ট্র্যাটেজি বদলে ফেলুন, যাতে ইচ্ছে মতো আপনি পরবর্তী জীবনে অবসর নিতে পারেন৷

ধার থাকলেও নয়

অনেকেই বুঝে উঠতে পারেন না বাজারে তার দেনা কত! তারা চাকরি করা অবস্থায় যেভাবে সেই ধার মাসে মাসে শোধ দিচ্ছেন এবং কোনও অসুবিধা হচ্ছে না, তারাই দুম করে চাকরি ছেড়ে দিলে অথৈ জলে পড়েন৷ তাই ইচ্ছাকৃত অবসরের সময় সেইটাই যখন আপনি দেনা-হীন অবস্থায় পৌঁছবেন৷

পার্টটাইম চাকরি পাবেন কি

অনেকেই ইচ্ছাকৃত অবসর নেওয়ার আগে স্থির করে রাখেন পরবর্তীকালে তারা পার্টটাইম চাকরি করবেন৷ সেই চাকরি থেকে যে রোজগার করবেন সেটা তাদের মাসিক বাজেটের অন্তর্গত৷ কিন্তু বাস্তবে এই চাকরি অধিকাংশ মানুষই পান না৷ তখন তারা বিপদে পড়েন৷ তাই কখনওই ধরে নেবেন না আপনার অভিজ্ঞতা যতই হোক, অবসর নেওয়ার পরের দিনই আপনি কোনও কাজ পেয়ে যাবেন৷ অতএব, মাসিক বাজেট যেন কখনওই আপনার ব্যাঙ্কে সঞ্চিত অর্থের সুদ এবং পেনশনের টাকার বেশি না হয়৷ যদি পার্টটাইম চাকরি পান তাহলে সেখান থেকে পাওয়া অর্থ উদ্বৃত্ত হিসেবে সঞ্চয় করে রাখুন৷ সেটা ভবিষ্যত মাসিক বাজেটের অন্তর্গত করবেন না৷

সিদ্ধান্তের আগে কথা বলুন

অবসর মানেই জীবনের একটা পরিবর্তন৷ তাই সিদ্ধান্তটা আপনি একা নেবেন না৷ নিজের স্বামী বা স্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করুন৷ বিশেষ করে যদি অন্যজনও যদি কর্মরত হন৷ কারণ আপনি অবসর নেওয়ার পর আপনার যদি কোনও কাজ না থাকে তাহলে সারাদিন কী করবেন সেটা আপনাকে ভাবতে হবে৷ কারণ আপনি বাড়িতে তখন অনেকটা সময় থাকবেন একা৷ এই রকম পরিস্থিতি আপনি কি মানসিকভাবে গ্রহণ করতে প্রস্তুত? এর ফলে কিন্তু আপনার মধ্যে একটা একাকিত্ববোধ আসতে পারে, যেখান থেকে আসতে পারে অবসাদ৷ অতএব সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে এই দিকটাও ভেবে নেওয়াও গুরুত্বপূর্ণ৷






মন্তব্য চালু নেই