মেইন ম্যেনু

‘আতিয়া মহলে’ নিহত ২ জঙ্গির পরিচয় মিলেছে

সিলেটের শিববাড়িতে জঙ্গি আস্তানা ‘আতিয়া মহলে’ সেনাবাহিনীর অভিযানে নিহত চার জঙ্গির দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে।

তারা হলেন- কাউসার ও তার স্ত্রী মর্জিনা। এ দুজনের লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছিল।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মোগলাবাজার থানার ওসি খাইরুল ফজল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণে নেয়ার পর জঙ্গি আস্তানা ‘আতিয়া মহলে’ তিনজন পুরুষ এবং একজন নারী জঙ্গির লাশ পাওয়া যায়। তাদের দুজনের লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বাকী দুটি লাশ বের না করার কারণ হিসেবে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘প্রতিটি লাশে সুইসাইড ভেস্ট লাগানো ছিল। তারা যে অবস্থায় আছে, তাদের বের করা খুব ঝুকিপূর্ণ।’

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় আনুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ে জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন টোয়াইলাইটের’ বিষয়ে সেনা সদর দফতরের প্রতিনিধি গোয়েন্দা পরিদফতরের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান সার্বিক তথ্য তুলে ধরেন।

প্রসঙ্গত, জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পেয়ে শুক্রবার ভোর থেকে ‘আতিয়া মহল’ নামের পাঁচতলা ভবনটি ঘিরে রাখে আইনশৃংখলা বাহিনী। বাড়িটির প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দেয়া হয়।

আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর ধারণা, ওই বাড়ির নিচতলায় অবস্থান করছিল নব্য জেএমবির শীর্ষ নেতা মুসাসহ চার জঙ্গি।

পরে শনিবার সকাল থেকে অভিযান শুরু করে সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডো দল। ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ নামের এ অভিযান তত্ত্বাবধান করছেন সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল আনোয়ারুল মোমেন।

সোমবার আতিয়া মহল সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণে নেয়ার মধ্য দিয়ে টানা চার দিনের জঙ্গিবিরোধী অভিযান ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ সমাপ্তির পথে চলল।






মন্তব্য চালু নেই