মেইন ম্যেনু

আজমীর শরিফের দরগায় চাদর চড়াতে উদ্যোগী মোদি

ভারতে ধর্মীয় মেরুকরণ সর্বগ্রাসী হয়ে উঠছে- এমন অভিযোগ প্রায়ই শোনা যায়। কিন্তু রাজধর্মে কোন ধর্মের রং লাগে না। সে কথাই যেন আবার প্রমাণ করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজমীর শরিফে খাজা মইনুদ্দিন চিস্তির দরগায় চাদর চড়াতে উদ্যোগী হলেন মোদি নিজেই।

তবে তিনি নিজে অবশ্য এই প্রথা পালন করতে যাচ্ছেন না। তবে উদ্যোগী হয়েছেন। যে চাদর

চড়ানো হবে তা তিনি এদিন তুলে দেন দুই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভি এবং জিতেন্দ্র সিংয়ের হাতে। এই চাদরই আজ তুলে দেওয়া হবে খাজা মইনুদ্দিন চিস্তির দরগায়। চিস্তির ৮১৫তম জন্ম শতবর্ষের উৎসবে আজ এই চাদর চড়ানো হবে। এই উপলক্ষে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর আগে এক মুসলিম ছাত্রীর পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এমবিএ ওই ছাত্রী লোন চেয়ে এক ব্যাঙ্কের দরজা থেকে ফিরে এসেছিলেন। প্রধানমন্ত্রীকে তিনি চিঠি দিয়ে জানান সে কথা। তারপরই দশদিনের মধ্যে অন্য একটি ব্যাঙ্ক থেকে তার লোনের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। ধর্ম নিয়ে রাজনীতির বিভিন্ন অভিযোগ ওঠে নানা সময়ে। তবে সুশাসন যে ধর্মের বিভাজনকে প্রশ্রয় দেয় না, তাইই বারবার প্রমাণ করছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।-সংবাদ প্রতিদিন।






মন্তব্য চালু নেই