মেইন ম্যেনু

‘অমি নিজেই যখন ক্যামেরার সামনে উলঙ্গ হতে চাইছি, তখন সমস্যা কোথায়?’ ভাইরাল কঙ্গনা

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা রানাউতকে ‘রেঙ্গুন’ নিয়ে প্রশ্ন করে বসেন এক সাংবাদিক। বিশেষ করে ‘রেঙ্গুন’-এ শাহিদ কপূরের সঙ্গে তাঁর সঙ্গমের দৃশ্যটি নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। কঙ্গনাকে সরাসরি প্রশ্ন করা হয়েছিল দৃশ্যটির জন্য কোনও বডি-ডাবল বা ক্যামেরার কারসাজি ব্যবহার করা হয়েছিল কি না?

কঙ্গনার সপাট জবাব শুনে ভিরমি খাওয়ার পরিস্থিতি। কারণ কঙ্গনা সাফ জানিয়ে দেন, ‘নগ্ন হতে আমার যখন আপত্তি নেই তখন কেন কোনও কৌশল ব্যবহার করা হবে?’

নায়িকার এমন জবাব খুব একটা অপ্রত্যাশিত ছিল না। কারণ বলিউডে কঙ্গনা ঠোঁটকাটা বলেই পরিচিত। কিন্তু, এদিন যে জবাব দেন তা তো শুধু সাহস থাকলে হয় না, সেই সঙ্গে নিজের আত্মবিশ্বাসের স্তরটাকেও অন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে হয়।

কঙ্গনা সাফ জানিয়ে দেন, ‘ওই দৃশ্যটি শ্যুট করতে না ক্যামেরার কারসাজি না বডি ডাবল, কোনও কৌশলই ব্যবহার করা হয়নি। চিত্রনাট্য চাইলে শরীর থেকে পোশাক খুলে ফেলতে আমার বিন্দুমাত্র কোনও অসুবিধা নেই।’

শুধু ‘রেঙ্গুন’ নয়, আগামী কোনও ছবিতেও চিত্রনাট্য এমনটা চাইলে তিনি পোশাক খুলতে স্বচ্ছন্দে রাজি আছেন বলেও জানান কঙ্গনা। কেরিয়ারের শুরু থেকেই কঙ্গনাকে নানা সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। কিন্তু, সেইসব দৃশ্যের অধিকাংশেই বিভিন্ন কৌশল ব্যবহার করা হয়েছিল। সেইসব দৃশ্যের তুলনায় ‘রেঙ্গুন’-এর ঘনিষ্ঠ দৃশ্যগুলি ছিল অনেক বেশী পরিণত এবং সাহসী। দৃশ্যগুলিকে যতটা সম্ভব স্বতঃস্ফূর্ত করাটা দরকার ছিল। তাই কঙ্গনা সাহসী হতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা বোধ করেননি।






মন্তব্য চালু নেই