মেইন ম্যেনু

৩৬ বছর পর গর্ভবতীর পেট থেকে শিশুর কঙ্কাল!

দীর্ঘ ৩৬ বছরের গর্ভাবস্থা শেষে এক নারীর পেটে অস্ত্রোপচার করে শিশুর কঙ্কাল বের করলেন চিকিৎসকরা। ভারতের মধ্যপ্রদেশে পিপারিয়ার (সেওনি) বাসিন্দা কান্তাবাই গুণবান্ত ঠাকরে নামের ওই নারীর বর্তমান বয়স ৬০ বছর।

ভারতীয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া মঙ্গলবার এ খবর জানিয়েছে।

তারা জানিয়েছে, ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী গর্ভাবস্থা। তাছাড়া গর্ভাশয়ে এভাবে শিশুর মৃত্যু ও কঙ্কালে পরিণত হওয়ার খবরও এর আগে শুনা যায়নি।

সম্প্রতি নাগপুরের এনকেপি সালভে ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস (NKPSIMS) এবং লতা মঙ্গেশকর হসপিটালের একদল চিকিৎসক অস্ত্রোপচার করে কঙ্কালটি বের করে। ওই নারী গত সপ্তাহে হাসপাতালের বহির্বিভাগে পেটে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে আসেন।

চিকিৎসরা জানান, ঠাকরে গত দুই মাস থেকে তলপেটে ব্যথা অনুভব করছিলেন। চিকিৎসকরা প্রথমে সনোগ্রাফি করে তলপেটের নিচের দিকে একটি গোটা অংশ দেখে ক্যানসারের আলামত বলে শনাক্ত করেছিলেন। পরে সিটি স্ক্যানে নিশ্চিত হওয়া যায় আসল ব্যাপারটি।

হাসপাতালের চিকিৎসক মুর্তজা আখতার জানান, এমআরআই করার পরই তারা বুঝতে পারেন ওটা শিশুর কঙ্কাল।

এরপর চিকিৎসকরা চিকিৎসা বিজ্ঞানের ইতিহাস ঘেঁটে জানতে পারেন, এর আগে বেলজিয়ামে এক নারীর গর্ভাবস্থা ১৮ বছর স্থায়ী হয়েছিল। ওটাই ছিল এ যাবতকালের দীর্ঘস্থায়ী গর্ভ।

চিকিৎসকরা জানান, ঠাকরে ১৯৭৮ সালে ২৪ বছর বয়সে গর্ভবতী হন। তবে ভ্রুণটি জরায়ুর বাইরে বড় হতে থাকে এবং একসময় সেটির বৃদ্ধি থেমে যায়। মাঝপথে গিয়ে ভ্রুণটির মৃত্যু হয়।






মন্তব্য চালু নেই