মেইন ম্যেনু

৩০ বছর পর পদক পাচ্ছে প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অস্ট্রেলিয়া

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপজয়ী প্রথম দল ছিল অস্ট্রেলিয়া । তবে তারা বিজয়ীর পদক পাচ্ছে রবিবার। যা শিরোপা জয়ের ৩০ বছর পর।

১৯৮৭ সালে ভারত ও পাকিস্তানে আয়োজিত বিশ্বকাপের চতুর্থ আসরে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল অ্যালান বোর্ডারের অস্ট্রেলিয়া। তৎকালীন ক্যালকাটায় ৭ রানে ইংল্যান্ডকে ফাইনালে হারিয়েছিল তারা। ম্যাচ শেষে দলের ১৪ জন খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফের তিনজন ট্রফি নিয়ে উদযাপন করলেও ওই অর্জনের স্মারক হিসেবে কোনও পদক পায়নি অজিরা। সেই ভুলটি শোধরানো হবে রবিবার সিডনিতে। অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তানের চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচের ইনিংস বিরতিতে পদক দেওয়া হবে বোর্ডারের দলকে। সিডনিতে এ জমকালো আয়োজন করা হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ জয়ের ৩০ বছর পূর্তি উপলক্ষে।

আর সেখানেই দেওয়া হবে পদকগুলো, এরপর ছোটখাটো আয়োজনে হবে রাতের ভোজও। বিশ্বজয়ী দলটির ১৭ সদস্য ছাড়াও এ অনুষ্ঠানে থাকবেন আইসিসিরি পরিচালক ডেভিড পিভার, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড ও নির্বাহী মহাব্যবস্থাপক প্যাট হাওয়ার্ড।

১৯৮৭ সালের পর ১৯৯৯, ২০০৩, ২০০৭ ও ২০১৫ সালে রেকর্ড সংখ্যক বিশ্বকাপ শিরোপা জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথমবার শিরোপা জয়ের এমন স্বীকৃতি পাওয়ার আগে গর্বিত বোর্ডার, ‘১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপ জয়ে আমাদের খেলোয়াড় ও স্টাফদের এভাবে স্বীকৃতি দেওয়ায় আমি গর্বিত। আমরা কখনও পদক বা এরকম কিছু পাওয়া চিন্তা করতাম না ওইসময়। শুধু চিন্তা থাকত টুর্নামেন্ট কীভাবে জেতা যায়। কিন্তু ওই সফলতার স্বীকৃতি দেওয়ায় আমরা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও আইসিসির প্রতি কৃতজ্ঞ।’

পদক না পাওয়ার ঘটনা কোন বিতর্কিত কারণে যে হয়েছে তা নয়। ২০০৩ সাল পর্যন্ত বিশ্বকাপ মঞ্চস্থ করার সব দায়ভার ছিল আয়োজক দেশের উপর। আইসিসি সরাসরি সংশ্লিষ্ট ছিল না। ফলে পদক দেওয়ার ব্যাপারটি মাঝেমধ্যে বাদ পড়েছে। তবে গত বছরের জুনে আইসিসির নির্বাহী কমিটিতে আলোচনায় উঠে আসে বিষয়টি। এরপরই সিদ্ধান্ত হয় যারা বিশ্বকাপ জয়ের পদক পায়নি তাদের দেওয়া হবে। শুধু অস্ট্রেলিয়াই নয়, ১৯৭৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ১৯৯৬ সালে শ্রীলঙ্কাও পায়নি চ্যাম্পিয়নের পদক। জানা গেছে- আইসিসি দুই বোর্ডের কাছেই পদক পাঠাবে, তবে বিশ্বজয়ী খেলোয়াড় ও স্টাফদের মধ্যে সেগুলো দেওয়ার দায়িত্ব বোর্ড কর্মকর্তাদের।-ইন্ডিয়া টুডে, এনডিটিভি






মন্তব্য চালু নেই