মেইন ম্যেনু

হাসিনা ঢাবি ছাত্রলীগের আজীবন সদস্য

আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ছাত্রলীগের আজীবন সম্মানিত সদস্য হিসেবে ঘোষণা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ছাত্রলীগ।

শনিবার দুপুরে শেখ হাসিনার ৩৩তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উদ্যোগে আয়োজিত আনন্দ শোভাযাত্রা ও সমাবেশে এ ঘোষণা দেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফ।

শোভাযাত্রাটি মধুর ক্যান্টিন থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বটতলায় এসে সমাবেশ করে।

সমাবেশে ছাত্রলীগের সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ বলেন, নরপিশাচরা যখন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে তখন আল্লাহর কৃপায় শেখ হাসিনা বেঁচে যান। পরবর্তীকালে তিনি সব ভয়-ভীতি, বাঁধা উপেক্ষা করে দেশে প্রত্যাবর্তন করেন  এবং বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্তির দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তারই ধারাবাহিকতায় তিনি দেশের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, এখন সময় এসেছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২১ শতকের চ্যালেঞ্জ বাস্তবায়নে সকলে মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্তির লক্ষ্যে শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালের এই দিনে দেশে আগমন করেছিলেন। দেশের মানুষ তাকে বরণ করে নিয়েছিলেন। তিনি ক্লান্তিহীনভাবে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তার একমাত্র লক্ষ্য দেশের উন্নয়ন। হাজারো ষড়যন্ত্র তাকে কোনো প্রকার ক্ষতি করতে পারেনি, ভবিষ্যতেও পারবে না। ছাত্রলীগ যতদিন বেঁচে থাকবে, ততদিন তার এবং তার দলের ক্ষতি হতে দেবে না।

সমাবেশে ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি মেহেদী হাসান মোল্লার সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জয়দেব নন্দী, ইমামুল হক সরকার টিটু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শামছুল কবির রাহাত, দপ্তর সম্পাদক শেখ রাসেল, তথ্য গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এরশাদুর রহমান চৌধুরী, ঢাবি যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান সাইফসহ কেন্দ্রীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতারা।






মন্তব্য চালু নেই