মেইন ম্যেনু

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত নারীর শরীরে গুলি!

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন, এ মর্মে এক নারীর লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলেও ময়নাতদন্তকালে তার শরীরে দুটি গুলি পাওয়া গেছে।

শনিবার বিকেলে ঢামেক হাসপাতালে ওই অজ্ঞাত (৩০) ওই নারীর ফুসফুস থেকে দুটি গুলি বের করা হয়।

তবে ওই নারীর লাশ হাসপাতালে নেওয়ার আগে পুলিশ বলেছিল, তিনি রাজধানীর গুলশানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

ঢামেক হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ বলেন, ‘এই নারীর লাশ যখন মেডিক্যালে নেওয়া হয়, তখন পুলিশের ধারণা ছিল- তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। কিন্তু আমরা যখন ময়নাতদন্ত করি তখন তার ফুসফুসে দুটি গুলি পেয়েছি।’

এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাতে গুলশান-২ নম্বর এলাকার ৪৩ নম্বর সড়ক থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করে গুলশান থানা পুলিশ। সুরতহাল প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে আজ সকালে ওই থানার উপ-পরিদর্শক ফারুক আহমেদ জানিয়েছিলেন, রাতে সড়ক থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। আমরা ধারণা করছি, তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।

তবে বিকেলে ময়নাতদন্তে তার শরীর থেকে গুলি বের হওয়ার পর ফারুক আহমেদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রাথমিক সুরতহাল প্রতিবেদন আমিই মেডিক্যালে সাবমিট করেছি। তবে শালীনতা বজায় রাখার জন্য আমি নিজে ওই নারীর প্রাথমিক সুরতহাল করিনি। আমি অন্য এক নারী পুলিশ সদস্যকে দিয়ে মৃত নারীর সুরতহালের কাজ করিয়েছি। এ জন্য তার শরীরে গুলির কোনো চিহ্ন ছিল কি না তা জানতে পারিনি। ওই নারী পুলিশের ভাষ্যমতে, শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে এবং সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই