মেইন ম্যেনু

স্পেনের হাস্যকর আইন

সামাজিক প্রথাগুলো শিশুরা সাধারণত পরিবার থেকেই শিখে। বাবা-মাকে শ্রদ্ধা করা, পরিবারের কাজে হাত লাগানোর মতো বিষয়গুলো শেখানোর জন্য পৃথিবীর কোনো দেশেই আলাদা প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজন হয় না। তবে এ ধারণাটিকে ধাক্কা দিল স্পেন। বাবা-মাকে সম্মান করা ও বাড়ির কাজে সহায়তা করতে শিশুদের বাধ্য করতে আইন প্রণয়ন করতে যাচ্ছে দেশটির সরকার।

এই লক্ষ্যে আইনটির খসড়াও প্রস্তুত হয়ে গেছে, শুধু পাস হওয়া বাকি। আইনটি পাস হলে স্পেনের শিশুদের বাবা-মা ও ভাইবোনদের শ্রদ্ধা-সম্মানের পাশাপাশি পারিবারিক কাজে অংশগ্রহণও করতে হবে। অবশ্য খসড়ায় আইনটি ভাঙলে কোনো শাস্তির বিধান রাখা হয়নি।

মোন্তসে রেগুরা নামে স্কুলশিক্ষিকা এক মা আইনটিকে হাস্যকর উল্লেখ করে বলেন, ‘এ ধরনের কোনো আইনের দরকার নেই। কারণ বিশ্বের আর দশটা দেশের মতো স্পেনের পরিবারগুলোও কিছু অলিখিত নিয়ম কানুন অনুসরণ করে চলে। শিশুরা বেড়ে ওঠার সঙ্গে এই রীতিগুলো রপ্ত করে থাকে।’

অবশ্য পারিবারিক এই বিষয়গুলো নিয়ে এর আগেও স্পেনে আইন হয়েছে। ২০০৫ সালে বিবাহ বিষয়ক আইনে সংশোধনীর মাধ্যমে পুরুষদের পারিবারিক কাজের ভার নেয়ার বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এর ফলে এখন স্পেনে গৃহকর্তারা পারিবারিক কাজ কর্মে স্ত্রীদের সহায়তার পাশাপাশি শিশু ও বৃদ্ধদের লালন পালন করায় অংশ নিতে বাধ্য।






মন্তব্য চালু নেই