মেইন ম্যেনু

‘স্ত্রীকে ভালবাসা জানানোর দিন’ পালনে জাপান

ফাদার্স ডে- মাদার্স ডে এসব তো শোনা কথা। জাপানে কিন্তু পালিত হয় BELOVED WIFE ডেও। স্ত্রীকে ভালবাসা জানানোর দিন। সেই উপলক্ষে এক পার্কে হাজির হয়েছিলেন বহু যুবক। খোলা গলায় স্ত্রীকে ভালবাসা জানালেন তাঁরা।

এক ছাদের তলায় বাস… রোজের দুঃখ সুখের সহযাত্রী। কখনও, কোনও একদিন হাত না ছাড়ার অঙ্গীকার নিয়েই শুরু হয়েছিল এই পথ চলা…তবে জীবন যেমন চলে। একদিন যাকে না দেখলে দিন কাটকতা, যার গলার স্বর না শুনলে রাতে ঘুম আসত না, তার উপস্থিতি এখন নেহাতই অভ্যাস। রোজের খিটিমিটি আর বাজার ফর্দের হিসেবে ব্যাকসিটে ভালবাসা। এবার সেই না বলতে পারা কথাটাই বলার দিন…BELOVED WIFE DAY।

বলব বলব করেও যা হয়ে উঠছিল না সেটাই বলে দিলেন এক ব্যাক্তি… একেবারে স্টেজে উঠে সকলের সামনে স্ত্রীকে ভালোবাসা জানালেন। জাপানে প্রতিবারই এই উত্সব হয় জানুয়ারির শেষে। শুরুটা হয়েছিল এক ফুলের দোকান থেকে। তার পর ছড়িয়ে পড়ে পুরো টোকিওতে।

আসছে বসন্ত… প্রিয়জনকে কত ভাবেই না ভালোবাসার কথা জানাবেন কতজনে… কিন্তু যে স্ত্রী রোজ ডিনার টেবিলে অপেক্ষা করেন, যিনি প্রতিটা ভালো-মন্দের খেয়াল রাখেন শেষ কবে তাঁকে তেমন করে ভালবাসার কথা বলেছেন মনে পড়ে কি… মনে পড়ছে না, তাহলে আর দেরি করবেন না… এবার বলেই ফেলুন।-জিনিউজ






মন্তব্য চালু নেই