মেইন ম্যেনু

সুচিত্রা সেনের বাড়ি দখলমুক্ত করতে বাধা নেই

জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুচিত্রা সেনের পাবনার পৈত্রিক বাড়ি দখলমুক্ত করতে আর বাধা রইলো না। সুচিত্রা সেনের বাড়িতে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে বাধা নেই মর্মে রায় দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। রবিবার বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের একটি বেঞ্চ এ সংক্রান্ত আপিল নিষ্পত্তি করে ওই রায় দেন।

গত বছরে পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ দেখে ‘হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশে’র পক্ষে সুচিত্রার বাড়িটি দখলমুক্ত করতে অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান সিদ্দিকী হাই কোর্টে একটি রিট করেন।

বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ গত ২০১২ সালের ২৬ জুলাই সুচিত্রা সেনের পাবনার পৈত্রিক বাড়িটি পরবর্তী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে সরকারের দখলে  নেওয়ার নির্দেশ দেন।

আদেশের পর সুচিত্রা সেনের পৈত্রিক বাড়িটি দখল করে গড়ে ওঠা ইমাম গাজ্জালী ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ আইয়ুব হোসেন খাঁন ওই বছরের ২৭ জুলাই স্থগিতাদেশের জন্য আপিল বিভাগে আবেদন করেন। তখন আপিল বিভাগ ওই আদেশে স্থগিতাদেশ দেয়।

সূত্রমতে, বাড়িটি স্থায়ীভাবে দখলের জন্য ট্রাস্ট কর্তৃপক্ষ নানা কৌশল নিয়েছে। ১৯৮৭ সালের জেলা প্রশাসন ওই ট্রাস্টকে বাড়িটি বার্ষিক ইজারা দিয়েছিল। ১৯৯১ সালের ১৮ জুন ট্রাস্ট বাড়িটি স্থায়ী বন্দোবস্ত নেওয়ার আবেদন করে। তবে ওই বছরের আগস্ট মাসে ভূমি মন্ত্রণালয় তাদের স্থায়ী বন্দোবস্ত না দিয়ে আবারও বার্ষিক ইজারা দেয়। পরবর্তীকালে ইজারার টাকা পরিশোধ না করায় ১৯৯৫ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রণালয় ইজারা বাতিল করে। ট্রাস্টের নেতারা বকেয়া পরিশোধ সাপেক্ষে ১৯৯৫ সালের ১৫ আগস্ট পুনরায় ইজারা নবায়ন করান। এর পর থেকেই বাড়িটি তাদের দখলে।






মন্তব্য চালু নেই